1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ভিকটিকে উদ্ধার ও এজাহার নামীয় প্রধান আসামি মোঃ মোস্তাফা কামালসহ আটক-০২ আমতলীতে যত্রতত্র গড়ে ওঠা ৪৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ। বদলগাছীতে ফায়ার সার্ভিস আসার পূর্বেই আগুন নিভাল গ্রামবাসী। সিডিএ’র নতুন চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ টেপির বাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নব গঠিত পরিচালনা  কমিটি গঠন।  চট্রগ্রাম,রিয়াজ উদ্দিন বাজার এর বিপরিতে, রাইফেল ক্লাব এলাকায় চার্জার ফ্যানের মূল্য বেশি,ফুলকলির মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য থাকায় জরিমানা। বাঘায় কবি সাহিত্যিক পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী ও বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ উদযাপন । কালাইয়ে আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত স্থানীয় এমপি তার বন্ধু প্রার্থীর পক্ষ নেয়ায় নির্বাচন প্রভাবিত আশংকায় প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলেন।   বটিয়াঘাটায় নারিকেল ফলনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

বটিয়াঘাটায় এক যোগে ২১ ব্লকে আলোক ফাঁদ উৎসব পালিত

  • আপডেট সময়ঃ মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৫৩ জন দেখেছেন

মহিদুল ইসলাম শাহীন বটিয়াঘাটা খুলনা,
সারা দেশের ন্যায় খুলনা বটিয়াঘাটা উপজেলার সকল ইউনিয়নে কৃষি অফিসের উদ্যোগে শত শত কৃষক কৃষাণীদের সাথে নিয়ে গত ২ অক্টোবর আলোক ফাঁদ উৎসব পালিত হয়। জানা গেছে,উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নের ২১ টি ব্লকে শত শত কৃষকদের উপস্থিতিতে এক যোগে উৎসব মুখর পরিবেশে আলোক ফাঁদ উৎসব পালিত হয়েছে। আমন ফসলের ভালো ফলনের লক্ষ্যে পোকার উপস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও সনাক্ত করার জন্য চাষীদের উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে বিনা খরচে পোকা মাকড় দমনের লক্ষ্যে এ উৎসব পালিত হয়। কৃষি অফিস সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা সরদার আব্দুল মান্নান জানান, ক্ষতিকারক পোকা বিশেষ করে মাজরা ও পাতা মোড়ানোর মথ আলোতে আকৃষ্ট হয়ে আলোর কাছে আসে তখন আলোক ফাঁদের নীচে পানির পাত্রে পড়ে মারা যায়। ফলে পোকা বংশ বৃদ্ধি করতে পারে না। উপসহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা ধ্রুব জ্যোতি সরকার জানান, যে সকল স্থানে আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হচ্ছে সেখানে সরেজমিনে পরিদর্শন করি এবং উপস্থিত কৃষকদের উপকারী ও অপকারী পোকা বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করে অপকারী পোকা দমন ব্যবস্থাপনায় কৃষকদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেই। বটিয়াঘাটার সদরের কৃষক সমিরন জোয়ার্দার বলেন, আমরা মনে করতাম ফসলের সব পোকাই ক্ষতি করে তবে আজকে এই আলোক ফাঁদ স্থাপন করে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা দীপন কুমার হালদার স্যারের মাধ্যমে জানতে পারলাম জমিতে উপকারী পোকাও থাকে। এখন উপকারী ও অপকারী পোকা সনাক্ত করে অপকারী পোকা দমন করতে পারবো।
সার্বিক বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ আবু বকর সিদ্দিক বলেন, এবার উপজেলায় ১৭৫০০ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধানের চাষ হয়েছে। আর এ আমন ফসল যাতে কোনরকম ক্ষতি না হয় সে ব্যাপারে কৃষকদের উৎসাহিত করার জন্য উপজেলার ২১ টি ব্লকে আলোক ফাঁদের এ উৎসব কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আলোক ফাঁদ প্রক্রিয়ায় একটি ক্ষেত ও এর আশপাশের এলাকায় পোকা মাকড়ের পরিস্থিতি এবং উপস্থিতি নির্নয় করা সম্ভব হয়। এছাড়া উপজেলায় পার্চিং পদ্ধতি প্রয়োগ করে ইতিমধ্যে সফলতা পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, কৃষকদের আরও সতর্ক করণের জন্য আমার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ কৃষকদের নিয়ে দলীয় আলোচনা, উঠান বৈঠক, অতন্দ্র জরিপ, স্কোয়ার্ড টিম গঠন সহ লিফলেট বিতরণ করছে কৃষকদের মাঝে। আশা করি কৃষকেরা দারুন ভাবে উপকৃত হবে এবং গত বছরের তুলনায় এবছর অধিক ফলন হবে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......