1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শ্রীপুর পৌর ৬ নং ওয়ার্ড পূর্ব পাড়া গ্রামে মুরুব্বী,ছাত্র ও যুবকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে শেরপুরের শ্রীবরদীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় ধর্ষক গ্রেপ্তার জনাব আকবর আলী খান, পিপিএম, অফিসার ইনচার্জ, শ্রীপুর থানা। গাজীপুর জেলায় মার্চ/২০২৪ মাসের অপরাধ সভায় শ্রেষ্ট অফিসার নির্বাচিত হন। আমতলীতে ডায়রিয়ার প্রকোপ,হাসপাতালে তীব্র শয্যা সংকট র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ১২ বছরের শিশু আজিম হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি রনি আক্তার ০৮ বছর পর  গ্রেফতার। শেরপুরের ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে বিবাহ, অর্থ আত্মসাৎ প্রদানকারীর সহযোগী গ্রেপ্তার এশিয়ান টেলিভিশনের কুতুবদিয়া প্রতিনিধির উপর হামলা গোবিন্দগঞ্জে মাহবুর হত্যার আসামিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত বাগেরহাট কল্যাণ সোসাইটি’র ঈদ পূর্ণমিলনী সম্পন্ন জামিন চেয়ে আবারও আবেদনের প্রস্তুতি মিন্নি’র

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে শ্রাবণী হত্যা মামলার আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৪৪ জন দেখেছেন

ফকির মিরাজ আলী খ, বিশেষ প্রতিনিধি:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চেয়ে গৃহবধূ শ্রাবণী আক্তার (১৯) হত্যার ন্যায় বিচার পেতে সম্মিলিতভাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছেন ভুক্তভোগীর মা রুবিয়া বেগম, তার স্বজনেরা ও গ্রামবাসীরা।

গতকাল বিকালে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার দিগনগর ইউনিয়নের সোর্দ্দী গ্রামে নিহত শ্রাবণীর বাড়ীতে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেওয়া ভুক্তভোগীরা বলেন, শ্রাবণী আক্তার সহজ-সরল ও শান্ত প্রকৃতির মানুষ ছিলো। প্রায় দেড় বছর আগে একই গ্রামের তারামিয়া ব্যাপারীর ছেলে হাসান বেপারীর সাথে পারিবারিকভাবে বিবাহ সম্পন্ন হয়। বিয়ের প্রথম থেকেই আমরা দুই দফায় যৌতুক দিয়েছি।

পরবর্তীতে তৃতীয় দফায় যৌতুক দিতে দেরি হওয়ায় চলতি বছরের ২৭ মার্চ পবিত্র রমজান মাসের প্রথম দিকে শ্রাবণীর মাদকাসক্ত স্বামী হাসান বেপারী (২৩) সহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন নির্মমভাবে শারীরিক নির্যাতন করে ও গলা টিপে তাকে হত্যা করে। পরে এই হত্যাকান্ডকে আত্মহত্যা করেছে মর্মে চালিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। এই ঘটনায় নিহতের মা রুবিয়া বেগম নিজে বাদী হয়ে মুকসুদপুর থানায় গত ২৭/০৩/২০২৩ ইং তারিখে একটি মামলা দায়ের করেন,মামলা নং -২৬ (মুকসুদপুর জি.আর- ৯২/২৩) পরবর্তীতে মামলার আইয়ু মুকসুদপুর থানার সিন্দিয়াঘাট পুলিশ ফাড়ির সাব ইন্সপেক্টর মো.শওকত হোসেন এবং র‍্যাব আসামিদের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে আমাদের অনাপত্তি সত্ত্বেও গোপালগঞ্জ জেলা পিবিআই পুলিশ আসামি পক্ষের সাথে যোগাযোগ করে ইচ্ছাকৃতভাবে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট দীর্ঘদিন আটকে রাখে যাতে শ্রাবণীর লাশ পুনঃময়না তদন্তে কোন আলামত খুঁজে পাওয়া না যায়। অথচ পুলিশের সুরতহাল রিপোর্টে শ্রাবণীর গায়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন উল্লেখ রয়েছে।

এছাড়া আটককৃত আসামিদের রিমান্ডে নেওয়ার কথা বলে মামলার বর্তমান আইও (পিবিআই) এস.আই রুপ কুমার বিশ্বাস আমাদের নিকট থেকে বিভিন্ন কিস্তিতে ১ লক্ষ টাকা ঘুষ নিয়েছেন। অথচ বাদী ও সাক্ষীদের সাথে যোগাযোগ না করে এবং সুষ্ঠু তদন্ত না করে আসামিপক্ষের নিকট থেকে মোটা অংকের ঘুষ নিয়ে আসামি হাসান বেপারীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারী উল্লেখ করে এবং অন্য আসামিদের নাম বাদ দিয়ে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। আমরা এই প্রতিবেদনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং মাননীয় বিচারক স্যারদের নিকট এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে সিআইডি পুলিশের মাধ্যমে সুষ্ঠু তদন্তের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সবিনয় অনুরোধ করছি। আমরা চাই শ্রাবণী হত্যার মূল রহস্য

উদঘাটন হোক এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক। এ দাবিতে আজ আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ সংশ্লিষ্ট সকলের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নিহত শ্রাবণী আক্তারের মা রুবিয়া বেগম, সাবেক ইউপি সদস্য আবুল কালাম মল্লিক, মো. শাজাহান শেখ, মো. মাফেল ফকির, মো. ছরোয়ার শেখ, মো. লুথু শেখ, মো. আওলাদ শেখ, আমির শেখ সহ শত শত নারী-পুরুষ উপস্থিত হন এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......