1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শেখ ফজলুল হক মনি স্মৃতি সংসদ কর্তৃক আয়োজিত পিকনিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংসদ গোলাম সরোয়ার টুকু’র শুভেচ্ছা বিনিময় চট্টগ্রামে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম কে অ্যাম্বুলেন্স প্রদানে পিএইচপি ফ্যামিলি আমতলী পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিক বরাদ্দ। বঙ্গলতলি বোধিপুর বন বিহারে ১০তম মহা সংঘদান উদযাপন শেরপুরে অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার “পরিমার্জিত কারিকলম দক্ষতা অর্জনে শিক্ষক প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই”-আদর্শ শিক্ষক ফোরামের শিক্ষক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন- জাতীয় দৈনিক সমকালে ‘বড় বোঝা হৃদয়ের ছোট্ট কাঁধে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ ,পেলেন ভ্যানগাড়ী।। আমতলীতে গরুসহ চোর গ্রেপ্তার সিএমপি, পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের ইপিজেড থানার দ্বিবার্ষিক পরিদর্শন সম্পন্ন।

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

  • আপডেট সময়ঃ বুধবার, ১২ অক্টোবর, ২০২২
  • ৮৭ জন দেখেছেন

মোঃ ইমানুর রহমান,জেলা প্রতিনিধি, খুলনা, খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশিদ ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে।

 

সোমবার (১০ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ডাক্তার শেখ বাহারুল আলম রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে এই অভিযোগ জমা দেন।

 

এর আগে অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী এস এম মোর্তজা রশিদী দারাও সিটি মেয়র এর বিরুদ্ধে আচরণবিধির লঙ্ঘনের অভিযোগ করেন।

 

অভিযোগে ডা. বাহার উল্লেখ করেন, গত ০৩ অক্টোবর খুলনা ক্লাবে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকসহ বিভিন্ন সরকারি সুবিধাভোগী অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন।

 

খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক তার বক্তব্যে ভোটারদের ইঙ্গিত করে এক ধরনের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন এবং তাদের পক্ষে ভোট না দিলে পরিণতি কি হতে পারে তারও একটি উদাহরণ দিয়েছেন।

 

তিনি আরও উল্লেখ করেন, চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শেখ হারুনুর রশীদ ওই মতবিনিময় সভায় উপস্থিত থেকে সভাপতিত্ব করেছেন।

 

চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়া সত্ত্বেও মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করে শেখ হারুনুর রশীদ নির্বাচনী আচরণ বিধি সরাসরি লঙ্ঘন করেছেন। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ অতি আবশ্যক।

 

প্রসঙ্গত, ০৩ অক্টোবর খুলনা ক্লাবে জেলার ৯ উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্যসহ জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটারদের নিয়ে মতবিনিময় সভার আয়োজন করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

 

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ হারুনুর রশিদের সভাপতিত্বে সভায় সিটি মেয়র প্রধান অতিথি এবং খুলনার ছয় সংসদ সদস্য বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

 

এ বিষয়ে জানতে কেসিসি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেককে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

 

আওয়ামী লীগ মনোনীত খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ হারুনুর রশিদ বলেন, যে কেউ অভিযোগ করতে পারে। তবে সেটি নির্বাচন কমিশন যাচাই বাছাই করে প্রমাণ হলে ব্যবস্থা নেবে। এতে আমাদের কোন আপত্তি নেই।

 

আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও খুলনার জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেন, অভিযোগ যাচাই বাছাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......