1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
গভীর নলকূপের ট্রান্সফরমার চুরি করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে অজ্ঞাত এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল হোসেন গ্রেফতার।  ঘূর্ণিঝড় রেমালে বন্দরের সব কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা অ্যালার্ট-৪ জারি চট্টগ্রামে স্মরণ সভা ইরানের নিরাপত্তা আরো জোরদার করা প্রয়োজন – নিজামী কালাই এ জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদ্বোধন হারুন অর রশিদ রিমেলের তান্ডবে বাঁধ ভেঙ্গে তলিয়ে গেছে আমতলীর নিম্নাঞ্চল  ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগ নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ করা কে এই আবদুর রহমান? আমতলীতে ‘রেমাল’ মোকাবেলায় জরুরী সভা, প্রস্তুত ১১১ সাইক্লোন শেল্টার তেতুলিয়ায় উপজেলা নির্বাচন চলাকালীন সময়ে সৌন্দর্য বর্ধক বাঁশঝাড় উধাও ময়মনসিংহের ফুলপুরে দুস্থ অসহায় ৪২৬০জন পেলেন ভিজিএফ কার্ড

অভয়নগর নওয়াপাড়া নৌ-বন্দরে লাইটার থেকে চুরি যাওয়া ১২০ টন সারের মধ্যে ৭৯ টন সার উদ্ধার, গ্রেফতার- ৯

  • আপডেট সময়ঃ মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৬৮ জন দেখেছেন

মোঃ তৌহিদুল ইসলাম রকি,অভয়নগর(যশোর) প্রতিনিধি:- যশোর অভয়নগরের প্রাণকেন্দ্র শিল্প ও বন্দরনগরী নোয়াপাড়া বাজারের স্বনামধন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মেসার্স আফিল ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক চায়না থেকে আমদানীকৃত সরকার অনুমোদিত (৬০০+৭০০) = ১৩০০ মেট্রিকটন ডিএপি স্যার ২টি লাইটার যোগে মোংলা বন্দর থেকে যশোর নওয়াপাড়া নৌ-বন্দরে আসার পথে ১০/০৯/২০২২ইং তারিখ রাত অনুমান ০১:০০-০২:০০ ঘটিকার সময় নৌ-বন্দরের আগে পৃথক ২টি জায়গায় লাইটার নোংগর করে লাইটারের মাস্টার,স্কটদের সহযোগীতায় অজ্ঞাতনামা চোর চক্র (২০+১০০)= ১২০ টন সার চুরি নিয়ে যায়।

এ সংক্রান্তে অভয়নগর থানায় মামলা রুজু হয়। যাহা অভয়নগর থানার মামলা নং- ১৬, তাং- ১৪/০৯/২০২২ইং ধারা-৪৫৭/৩৮০/৪১১ পেনাল কোড রুজু হয়।

 

যশোর জেলা পুলিশ সুপার জনাব প্রলয় কুমার জোয়ারদার,বিপিএম (বার), পিপিএম মহোদয়ের নির্দেশে ওসি ডিবি রুপন কুমার সরকার, পিপিএম এর নেতৃত্বে এসআই মফিজুল ইসলাম, পিপিএম ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শামীম হোসেনদের সমন্বয়ে একটি টিম ঘটনার তদন্তে নেমে ইং ১৯ ও ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ যশোরের শিল্প ও বন্দরনগরী নওয়াপাড়া,বাগেরহাট, পিরোজপুর, গোপালগঞ্জ, ঝিনাইদহ শেখপাড়া এলাকায় অভিযান করে ৭জন আসামীকে গ্রেফতার ও তাদের স্বীকারোক্তি মতে ১৫৬৬ বস্তা ৭৯ টন ডিএপি সার, যার সরকারী আমদানী মূল্য ৭৯,৭৮,১০০/- ( ঊনআশি লক্ষ আটাত্তর হাজার একশত) টাকা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

 

ইতোপূর্বে ঘটনায় জড়িত আরো ২ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।

 

এঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামী,

(১) হুমায়ুন কবির (৩৫), পিতা-নবাব আলী গোলদার, সাং-বাহিরঘাট চেঙ্গুটিয়া।

(২) সোহাগ হোসেন (৩০), পিতা- বিল্লাল হোসেন, সাং- নওয়াপাড়া, উভয় থানা-অভয়নগর। জেলা-যশোর।

(৩) অনিমেষ শিকদার (৩৫), পিতা- ওমল শিকদার, সাং-তারাবুনিয়া, থানা-রাজাপুর, জেলা-ঝালকাঠি, এ/পি-জনৈক মঈন হোসেন এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া, সাং-মাছিমপুর, থানা ও জেলা-পিরোজপুর।

(৪) ভূপাল সরকার(২৭), পিতা-সুদান্ন সরকার, সাং-কলমিগুনিয়া, থানা- পাইকগাছা, জেলা- খুলনা।

(৫) ফয়সাল মোরশেদ সজীব(৩০), পিতা- মোশারফ হোসেন, সাং-পশ্চিম শিকারপুর।

(৬) লিখন সরকার(৩৯), পিতামৃত- বিমল সরকার, সাং-ঝাটকাঠি।

(৭) আক্কাছ আলী শিকদার (৪২), পিতামৃত- মোবারক আলী শিকদার, সাং-কুমিরমারা, সর্বথানা ও জেলা- পিরোজপুর।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......