1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শেরপুরে আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারী প্রধান আসামী গ্রেপ্তার চট্টগ্রামে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সংশোধনী সেবা সহজ করণ করা হচ্ছে সুদীপ কুমার চক্রবতী-বিপিএম সেবা,আপনাকে ভোলা সহজ নয়। শিবগঞ্জে ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী নিহত র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে পাহাড়তলী থানার আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি মোঃ শামসুল আলম রানা সহ  গ্রেফতার-০২ ঝিনাইগাতীতে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ আমতলীতে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত হওয়ার ঘটনায় পৃথক দু’টি তদন্ত কমিটি গঠিত বহুল আলোচিত রাসেল’স ভাইপার সাপের সন্ধান পাওয়া গেছে। শিবগঞ্জে অনলাইন প্রেস ক্লাবের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হারুন অর রশিদ যশোর অভয়নগরে বেপরোয়া বালিবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে যুবক নিহত

র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল হোসেন গ্রেফতার। 

  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ২৭ মে, ২০২৪
  • ১৪ জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:-নিহত ভিকটিম ফজলুল করিম (৩০) চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই উপজেলার নিজামপুর গ্রামের বাসিন্দা শফিউল আলমের ছেলে। সে মীরসরাই উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। গত ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মীরসরাইয়ের নিজামপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ওয়াহেদপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আমিন মুহুরী হত্যাকান্ডের জেরে গত ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখ দুপুর আনুমানিক ১২৩০ ঘটিকায় ভিকটিম তার নিজ বাড়িতে খাবার খাওয়ার সময় পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী আসামি মোঃ শাকিল হোসেন ও তার ১২-১৫ জন সহযোগী সন্ত্রাসীরা অতির্কিতভাবে হামলা চালায়। এ সময় ফজলুল করিম আত্মরক্ষার্থে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা তাকে ধাওয়া করে লাঠিসোঁটা দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। পরে স্থানীয় লোকজন এসে গুরুতর আহত অবস্থায় ভিকটিমকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় এবং পরবর্তীতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে একই দিন আনুমানিক ১৫০০ ঘটিকায় ভিকটিম মৃত্যুবরণ করে। উক্ত নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনাটি সে সময় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় ব্যাপক আলোচিত ও চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে।

 

উক্ত নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহত ভিকটিম ফজলুল করিম এর পিতা বাদী হয়ে চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই থানায় ১২ জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-০২(০৯)১৭, জিআর নং-৯৭/১৭, ধারা-৩০২/৩৪ পেনাল কোড ১৮৬০। উক্ত হত্যাকান্ড ঘটানোর পর হতে আসামি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট হতে গ্রেফতার এড়াতে নিজ এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে চলে যায়।

 

এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম বর্ণিত হত্যা মামলার পলাতক আসামিকে গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারি এবং ছায়া তদন্ত অব্যাহত রাখে। নজরদারির এক পর্যায়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, বর্ণিত হত্যা মামলার প্রধান আসামি মোঃ শাকিল হোসেন ফেনী জেলার ফেনী মডেল থানাধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের স্টার লাইন ফিলিং স্টেশন এর সামনে অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের একটি আভিযানিক দল গত ২৬ মে ২০২৪ইং তারিখ আনুমানিক ১৯৪০ ঘটিকায় বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক প্রধান আসামি মোঃ শাকিল হোসেন (২৬), পিতা-কামাল হোসেন, সাং-ছরারকুল, থানা-মীরসরাই, জেলা-চট্টগ্রাম’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গ্রেফতারকৃত আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে যে, সে এবং তার অন্যান্য সহযোগীরা রাজনৈতিকভাবে প্রভাব বিস্তার ও পূর্ব বিরোধের জেরে ভিকটিম ফজলুল করিমকে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে।

গ্রেফতারকৃত আসামি মোঃ শাকিল হোসেন এর সিডিএমএস পর্যালোচনায় তার বিরুদ্ধে মীরসরাই থানায় একটি হত্যা ও একটি হত্যার চেষ্টা এবং জোরারগঞ্জ থানায় একটি হত্যা চেষ্টার মামলা সহ সর্বমোট ০৩ (তিন)টি মামলার তথ্য পাওয়া যায়।

 

গ্রেফতারকৃত আসামি সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......