1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও কুরবানীর সমস্ত গোশত গরিব দুঃখী অসহায় মানুষদের মাঝে অকাতরে বিলিয়ে দিলেন গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার ননীক্ষীর ইউনিয়নের বনগ্রাম বাজার, জলিরপাড়ের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিক্ষানুরাগী শেখ মোঃ জিন্নাহ।। এবারও চসিকে কোরবানির বর্জ্য পরিস্কার -পরিচ্ছন্নতায় শীর্ষে দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ড শিবগঞ্জে ভ্যান চালকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হারুন অর রশিদ ঘূর্ণিঝড় রেমালের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত মংপ্রু মার্মার পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন, আয়েরও কোন উৎস নেই ঝিনাইদহ চেক পোস্টে ২৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কালাইয়ে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে পশুর হাট। *মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা-২০২৪ উপলক্ষে ৫০ টি দুস্থ পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম।* এলজিইডি’র বাস্তবায়নে মুকসুদপুরের বিলচান্দা গ্রামের মানুষ শহরের সুবিধা পেতে চলেছে সাগরিকা ও হালিশহর বড়পুল মহেশখাল পাড়স্থ পশুর হাট পরিদর্শনে সিএমপি পুলিশ কমিশনার “সাংবাদিকতা সংক্রান্ত নেতিবাচক লেখাগুলো ফেসবুকে প্রচার বন্ধ হোক”- “সাইদুর রহমান রিমন”। 

ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগ নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ করা কে এই আবদুর রহমান?

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ২৬ মে, ২০২৪
  • ১২ জন দেখেছেন

পারভেজ রানা,বিশেষ প্রতিনিধিঃ বরগুনার আমতলী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগ নিয়ে গত ২৪মে দৈনিক ইনকিলাবে অনলাইন ভার্সনে আমতলী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে আক্বিদা ও আদর্শ বিরোধী ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের সংবাদদাতা কে এই আবদুর রহমান?

এদিকে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ হওয়ার বিষয়ে জানতে পেরে দৈনিক ইনকিলাব কর্তৃপক্ষ প্রকাশিত সংবাদটি অনলাইন ভার্সন থেকে সরিয়ে ফেলে।

প্রকাশিত সংবাদটি আমতলীব সাংবাদিকের নজরে আসার পর সংবাদে উল্লেখিত সংবাদাতার খোঁজ নিতে গিয়ে দেখা যায় সংবাদের শুরুতে লেখা আমতলী থেকে মোঃ আবদুর রহমান। আমতলীতে এ নামের কোন সংবাদদাতা না থাকায় অনুসন্ধান করে ও তার ফেইসবুক প্রোফাইল ঘেটে দেখা যায় তার বাড়ী পটুয়াখালীতে।আবদুর রহামান এর বিষয়ে খোঁজ নিতে পটুয়াখালী জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন উজ্জ্বল এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান এ নামে পটুয়াখালীতে কোন সাংবাদিক নেই।আবদুর রহমান এর ফেইসবুক প্রোফাইলে লেখা রয়েছে বাড়ী পটুয়াখালীতে থাকে ঢাকায়।

প্রকাশিত সংবাদের কোন সত্যতা না থাকায় ও বিষয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এমন সব অবান্তর বিষয় লিখে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে ধর্মীয় অনুভুতিকে কাজে লাগিয়ে এলাকার পরিবেশকে অশান্ত করার হীন প্রয়াস বলে মনে করছেন আমতলীর আপামর জনসাধারণ।

আমতলী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমামের পদটি শুন্য থাকায় ও বর্তমান মুয়াজ্জিন চাকুরী করতে আগ্রহী না হওয়ায় এ দু’টি পদে নতুন ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগের জন্য মসজিদ কমিটি বিজ্ঞাপন সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণা করে। মসজিদ কমিটির সকল সদস্যের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সভায় নিয়োগ প্রধান করার জন্য নিয়োগ বোর্ড গঠন করা হয়।সে নিয়োগ বোর্ডে বিশিষ্ট আলেম সহ উভয় কমিটির সদস্যরা উপস্থিত থেকে বিগত ২৩ই মে ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগ প্রদান করেন।

যে নিয়োগকে আমতলী বাসী সাদুবাদ জানালেও একটি চক্র ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে মনে করছেন আমতলী উপজেলা বাসী।

এই নিয়োগের সকল প্রক্রিয়া নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছতার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও প্রকাশ করা হয় যা দেখে আমতলীর আপামর জনসাধারণ সন্তুষ্ট থাকলেও একটি চক্র নিয়োগকে বিতর্কিত করতে অপচেষ্টা চালাচ্ছে তারই ধারাবাহিকতায় এ ধরনের অপ-সাংবাদিকতাকে কাজে লাগিয়েছে।

উল্লেখ্য, মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি হলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম এবং সাধারণ সম্পাদক হলেন আমতলী পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ মতিয়ার রহমান। এ কমিটিতে আরও রয়েছেন সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ তারিক হাসান,আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু সহ বিভিন্ন শ্রেনি পেশার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......