1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও কুরবানীর সমস্ত গোশত গরিব দুঃখী অসহায় মানুষদের মাঝে অকাতরে বিলিয়ে দিলেন গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার ননীক্ষীর ইউনিয়নের বনগ্রাম বাজার, জলিরপাড়ের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিক্ষানুরাগী শেখ মোঃ জিন্নাহ।। এবারও চসিকে কোরবানির বর্জ্য পরিস্কার -পরিচ্ছন্নতায় শীর্ষে দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ড শিবগঞ্জে ভ্যান চালকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হারুন অর রশিদ ঘূর্ণিঝড় রেমালের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত মংপ্রু মার্মার পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন, আয়েরও কোন উৎস নেই ঝিনাইদহ চেক পোস্টে ২৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কালাইয়ে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে পশুর হাট। *মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা-২০২৪ উপলক্ষে ৫০ টি দুস্থ পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম।* এলজিইডি’র বাস্তবায়নে মুকসুদপুরের বিলচান্দা গ্রামের মানুষ শহরের সুবিধা পেতে চলেছে সাগরিকা ও হালিশহর বড়পুল মহেশখাল পাড়স্থ পশুর হাট পরিদর্শনে সিএমপি পুলিশ কমিশনার “সাংবাদিকতা সংক্রান্ত নেতিবাচক লেখাগুলো ফেসবুকে প্রচার বন্ধ হোক”- “সাইদুর রহমান রিমন”। 

ফেইসবুকে “পাত্রী চাই” বিজ্ঞাপন দিয়ে বিয়ের ফাঁদ তৈরী করে তরুনীকে হোটেলে নিয়ে ধর্ষন

  • আপডেট সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪
  • ২২ জন দেখেছেন

জাকারিয়া হোসেন,বিশেষ প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ  পতেঙ্গা মডেল থানা পুলিশ গত ১৪ মে ২০২৪ খ্রি: থানাধীন চরপাড়াস্থ বিএসএল আবাসিক হোটেলে আসামী আসলাম চৌধুরী (৩৭), পিতা- অলিফ, সাং- কাতিরহাট, থানা- নেত্রকোনা সদর, জেলা- নেত্রকোনা। উক্ত আসামী নিজেকে পল্লী বিদ্যুতের বড় অফিসার এবং চট্টগ্রাম শহরে নিজস্ব বাড়ী-গাড়ীর মালিক বলিয়া মিথ্যা পরিচয় দিয়ে ফেইসবুকে পাত্রী চাই শিরোনামে স্ট্যাটার্স দেয় এবং নগরীর এক প্রতিবন্ধী পরিবারের ২৭ বছরের তরুনীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে নিয়ে এসে উক্ত আবাসিক হোটেলে তাহাকে ধর্ষন করিয়া পরদিন  ১৪-০৫-২০২৪খ্রিঃ তারিখ সকাল ১০:০০ ঘটিকায় আসামী ভিকটিমকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ফৌজদারহাট রিং রোডের মাথায় গিয়ে ভিকটিমের ০২টি ব্যবহৃত মোবাইল নিয়ে উক্ত ভিকটিমকে কৌশলে মোটরসাইকেল হতে নামিয়ে দিয়ে আসামী পালিয়ে যায়। এ সংক্রান্তে ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে পতেঙ্গা মডেল থানায় এজাহার দায়ের করে। উক্ত এজাহারের আলোকে পতেঙ্গা মডেল থানার মামলা নং-০৮, তারিখ-১৬ মে ২০২৪খ্রিঃ, ধারা-২০০০ খ্রি: নারী শিশু ‍নির্যাতন দমন আইন (সংশোধীত-২০২০) ৯(১) রুজু করা হয়। মামলা রুজুর পর অফিসার ইনচার্জ ( ওসি)  মোঃ কবিরুল ইসলাম এর সার্বিক দিক নির্দেশনায় ও ওসি তদন্ত আনিসুর রহমান এর সহযোগিতায় তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই/আশিষ কুমার দে বিশ্বস্ত গুপ্তচরের তথ্যের ভিত্তিতে এবং তথ্য পযুক্তির মাধ্যমে  আসামীর অবস্থান সনাক্ত পূর্বক চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই থানা এলাকা হইতে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স সহ অভিযান পরিচালনা করিয়া ২২ মে ২০২৪খ্রিঃ তারিখ ১৭:২০ ঘটিকার সময় গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারের পরবর্তীতে জানা যায়, উক্ত আসামীর উপরোক্ত নাম ঠিকানা সম্পূর্ণ ভূয়া। প্রকৃতপক্ষে তার সঠিক নাম- শিবলী সাদিক নাঈম (৪১), পিতা- মৃত এ কে এম হুমায়ুন, মাতা- আনোয়ারা বেগম, সাং- বমটেক, ৮নং ওয়ার্ড, যোশর ইউপি, থানা- শিবপুর, জেলা- নরসিংদী। ধৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করিয়া তাহার হেফাজতে থাকা ভিকটিমের নিকট হইতে কৌশলে নিয়ে যাওয়া ব্যবহৃত ০২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার পূর্বক সাক্ষীদের উপস্থিতিতে জব্দ তালিকা মুলে জব্দ করেন।  আসামীকে বর্নিত মামলায় গ্রেফতার করিয়া বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......