1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ভিকটিকে উদ্ধার ও এজাহার নামীয় প্রধান আসামি মোঃ মোস্তাফা কামালসহ আটক-০২ আমতলীতে যত্রতত্র গড়ে ওঠা ৪৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ। বদলগাছীতে ফায়ার সার্ভিস আসার পূর্বেই আগুন নিভাল গ্রামবাসী। সিডিএ’র নতুন চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ টেপির বাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নব গঠিত পরিচালনা  কমিটি গঠন।  চট্রগ্রাম,রিয়াজ উদ্দিন বাজার এর বিপরিতে, রাইফেল ক্লাব এলাকায় চার্জার ফ্যানের মূল্য বেশি,ফুলকলির মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য থাকায় জরিমানা। বাঘায় কবি সাহিত্যিক পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী ও বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ উদযাপন । কালাইয়ে আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত স্থানীয় এমপি তার বন্ধু প্রার্থীর পক্ষ নেয়ায় নির্বাচন প্রভাবিত আশংকায় প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলেন।   বটিয়াঘাটায় নারিকেল ফলনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ফলোআপ সংবাদ প্রকাশের জেরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৫০হাজার টাকা অর্থদন্ড।

  • আপডেট সময়ঃ বুধবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩২৫ জন দেখেছেন

মিজানুর রহমান, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি :

গত ১১ নবেম্বর দৈনিক গনমুক্তি পত্রিকা সহ বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোটালে খবর প্রকাশের জেরে শেরপুর জেলা প্রশাসক এর নির্দেশনায় আজ বুধবার শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের সমেশ্বরী নদীর তাওয়াকুচা এলাকা থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে মোঃ আশরাফ আলী (২৭) নামে এক বালু ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৫০হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয়।

১৫নভেম্বর বুধবার বিকেলে এ ভ্রাম্যামাণ আদালত পরিচালনা করেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি)
মোঃ আশরাফুল কবীর।

দন্ডিত বালু ব্যবসায়ী উপজেলার বালিঝুড়ি এলাকার মোজাম্মেল হকের ছেলে।উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে,বুধবার বিকেলে
উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ভূঁইয়ার নেতৃত্বে
সহকারী কমিশনার (ভূমি)
মোঃ আশরাফুল কবীর,
বিজিবি,বন বিভাগ এবং আনসার বাহিনীর সমন্বয়ে উপজেলা টাস্কফোর্সের এক অভিযান পরিচালনার সময়
বালিঝুড়ি এলাকার বাসিন্দা এবং অবৈধ বালু ব্যবসায়ী আশরাফ আলীকে সমেশ্বরী নদীর তাওয়াকুচা এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও পরিবহণকালে হাতে নাতে আটক করা হয়।

পরে তার হেফাজতে থাকা অবৈধভাবে উত্তোলিত বালু জব্দ করা সহ বালু উত্তোলন ও পরিবহণের দায়ে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযুক্ত আশরাফ আলীকে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয়।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ভূঁইয়া উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে বলেন “অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা পরিবেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।এতে করে নদীর তীরে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হবে এবং তীরবর্তী বাসিন্দাদের বাড়িঘর ভেঙ্গে যেতে পারে।

জনস্বার্থে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।এসময় বিজিবি,বনবিভাগ এবং উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা কর্মচারি উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......