1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানার চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার এজাহারনামীয় পলাতক আসামি মোঃ রায়হান’কে চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব-১১। সীতাকুণ্ডে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ যানজট সৈনিক কল্যাণ সংস্থা Uno নিকট খেজুরের বীজ প্রদান বাংলাদেশ গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সমিতি চট্টগ্রাম জেলা শাখা কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান ও মাস ব‍্যাপি সাংগঠনিক কর্মসূচি 2024 সম্পন্ন। বরগুনার তালতলীতে অবৈধ চোলাই মদসহ আটক ১ জন। “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়”– “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়” শেরপুরের ঝিনাইগাতী তিনজন হোটেল মালিককে ৬ হাজার টাকা জরিমানা ২ কেজি গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী বরগুনা ডিবি পুলিশের হাতে আটক।

রাঙ্গামাটি, বাঘাইছড়ি উপজেলায় তৃণমুলে ক্ষমতাসীনদলের অন্তকোন্দলে দিশেহারা নেতাকর্মীরা। 

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২৩
  • ২০০ জন দেখেছেন

ক্রাইম রিপোর্টার, বাঘাইছড়ি (রাঙ্গামাটি):-    

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে আওয়ামীলীগের অন্ত কোন্দল ইউনিয়ন থেকে উপজেলা পর্যায় হয়ে এখন জেলা পর্যায়ে পৌছেছে। প্রতিদিনই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একের পর তথ্য-উপাত্ত প্রকাশ করে উপজেলা আওয়ামীলীগের চরিত্রহননের অভিযান চালানো হচ্ছে। অতি সম্প্রতি আমতলী ইউনিয়নের সাবেক, চেয়ারম্যান ও বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক রাসেল চৌধুরীকে দল থেকে, আজীবন বহিস্কারের সুপারিশের তথ্য প্রকাশের লক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করার পরপরই প্রতিবাদ হিসেবে সাবেক, চেয়ারম্যান রাসেল চৌধুরী, রাঙ্গামাটি জেলা নেতৃবৃন্দের নিকট সরেজমিনে তদন্তের আবেদন জানিয়েছেন।

জানা গেছে, রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের  প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক এবং আমতলী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক, চেয়ারম্যান রাসেল চৌধুরীকে বিতর্কিত কর্মকান্ডের জন্য দলীয় সকল কার্যক্রম থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। এই লক্ষে মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) দলীয় কার্যালয়ে এক জরুরি সভার আয়োজন করা হয়। সভায় আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে জেলা আওয়ামীলীগ বরাবরে রেজুলেশন করে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। বুধবার (১ নভেম্বর) বিকেল ৫টায় দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলী হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মামুন। এসময় উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলী হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মামুন লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে তুলে ধরেন।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অভিযুক্ত আমতলী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রাসেল চৌধুরীর কাছে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কতিপয় নামধারী আওয়ামীলীগ নেতা

পাবলাখালী বন রক্ষিত বাগান থেকে আনুমানিক ৫০ লক্ষ টাকার গাছ চুরি করে নেওয়ার বিষয় স্থানীয় বন বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বরাবরে

বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মামুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা দিলে তারই প্রতিক্রিয়া হিসেবে ষড়যন্ত্রমূলক আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলন ও উক্ত তথ্য রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি/ সম্পাদক বরাবর চিঠি প্রেরণ করেন। কাঠ পাচারকারী চক্র সংঘবদ্ধভাবে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে অভিযোগ প্রমাণিত হলে জেলা আওয়ামীলীগ যেই সিদ্ধান্ত নেবে সেটি আমি মাথা পেতে নেব। রাসেল জানান, আমি ইতিমধ্যেই রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি/সম্পাদক বরাবরে আবেদন করেছি। উক্ত আবেদনে রাসেল চৌধুরী উল্লেখ করেন, আমার বিরুদ্ধে গিয়াস উদ্দিন যেসকল অভিযোগ তুলেছেন সেসব সম্পূর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট। মূলতঃ গিয়াস উদ্দিন, বিগত স্থানীয় সরকার নির্বাচনে গিয়াস উদ্দিন বাঘাইছড়ি বিভিন্ন মাধ্যমে আমি ও আমার স্ত্রীর কাছ থেকে কয়েক দফায় টাকা গ্রহণ করেছেন।

এছাড়াও আমার বাবার কাছ থেকেও টাকাগ্রহণ করেছেন। এছাড়াও আমতলি ইউনিয়নের সীমানা থেকে ১৮০টি গাছ কেটে নিয়ে গেছে, সেটি নিয়ে আমি বনবিভাগেও অভিযোগ দিয়েছি। এছাড়াও দলের একজন প্রভাবশালী নেতার বিরুদ্ধে ব্যাক্তি স্বার্থে আমাকে দিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করাতে না পেরে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে আমাকে হেয় করার জন্যই এসবগুলো করানো হচ্ছে।

 

গিয়াস উদ্দিন মামুনের সকল প্রকার ডকুমেন্টারী এভিডেন্স ভিডিও ফুটেজসহ আমার কাছে আছে সংরক্ষিত আছে, প্রয়োজনে আমি এগুলো যথা সময় যথা স্হানে দেখাতে পারবো, আমি ছাত্র রাজনীতি করে আসছি। জামাত থেকে আসি নাই, গিয়াস উদ্দিন ১৯৯৮ খ্রি: জামাত থেকে এসেছে।

আমি সবগুলো বিষয় যথাযত তথ্য প্রমানসহ আমার দলের সর্বোচ্চ পর্যায়ে ন্যায় বিচারের স্বার্থে সরেজমিনে তদন্তের আবেদন করেছি। সেক্ষেত্রে আমার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগের সত্যতা পেলে দল থেকে যে সিদ্ধান্ত দেবে সেটাই আমি মেনে নিবো”।

 

এদিকে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিরোধীদলগুলোর অব্যাহত রাজনৈতিক চাপ ছাড়াও রাঙ্গামাটিতে ক্ষমতাসীনদল আওয়ামীলীগের উপর অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগ রয়েছে।

 

এমতাবস্থায় তৃণমুল পর্যায়ের আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের অন্তকোন্দল সৃষ্টি হওয়ার বিষয়টিকে বিষফোঁড়া উঠার মতো পরিস্থিতির তুলনা করছে স্থানীয়রা।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......