1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শ্রীপুর পৌর ৬ নং ওয়ার্ড পূর্ব পাড়া গ্রামে মুরুব্বী,ছাত্র ও যুবকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে শেরপুরের শ্রীবরদীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় ধর্ষক গ্রেপ্তার জনাব আকবর আলী খান, পিপিএম, অফিসার ইনচার্জ, শ্রীপুর থানা। গাজীপুর জেলায় মার্চ/২০২৪ মাসের অপরাধ সভায় শ্রেষ্ট অফিসার নির্বাচিত হন। আমতলীতে ডায়রিয়ার প্রকোপ,হাসপাতালে তীব্র শয্যা সংকট র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ১২ বছরের শিশু আজিম হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি রনি আক্তার ০৮ বছর পর  গ্রেফতার। শেরপুরের ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে বিবাহ, অর্থ আত্মসাৎ প্রদানকারীর সহযোগী গ্রেপ্তার এশিয়ান টেলিভিশনের কুতুবদিয়া প্রতিনিধির উপর হামলা গোবিন্দগঞ্জে মাহবুর হত্যার আসামিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত বাগেরহাট কল্যাণ সোসাইটি’র ঈদ পূর্ণমিলনী সম্পন্ন জামিন চেয়ে আবারও আবেদনের প্রস্তুতি মিন্নি’র

সিএমপি পাহাড়তলী থানার অভিযানে চেতনানাশক ঔষধ সহ কুখ্যাত আন্তঃ জেলা অজ্ঞান পার্টি’র মূল হোতাসহ গ্রেফতার-০২

  • আপডেট সময়ঃ মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৬৮ জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:-

গত ২১ আগস্ট ২০২৩ খ্রিঃ তারিখ বিকাল ৫.৩০ ঘটিকার সময় ফেনী থেকে জনৈক আবদুল্লাহ আল মামুন তার প্রয়োজনীয় কাজ শেষে ফেনী বাসস্ট্যান্ড থেকে সিডিএম বাস যোগে তার কর্মস্থল চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই থানাধীন বড়তাকিয়া বাজারে নামার জন্য উক্ত বাসের পিছনের সিটে বসেন। তখন একজন ডাব বিক্রেতা আসে। বাদির পানির পিপাসা লাগায় ডাব বিক্রেতার নিকট থেকে বিকাল অনুমান ০৫.৩০ ঘটিকার সময় একটি ডাব ৫০ টাকা দিয়ে ক্রয় করে ডাবের পানি পান করেন। ডাবের পানি পান করার প্রায় ৫-৭ মিনিট পর তিনি অচেতন হয়ে পড়েন।

পরবর্তীতে একই তারিখ সন্ধ্যা অনুমান ০৭.৪৫ ঘটিকার সময় অজ্ঞাতনামা চোর/চোরেরা বাদিকে অচেতন করে তার পকেটে থাকা মানিব্যাগ, মোবাইল, নগদ টাকা, ৩২টি এটিএম কার্ড চুরি করে নিয়ে গিয়ে পাহাড়তলী থানাধীন একে খান মোড়স্থ বন্দর ফিলিং স্টেশন এর সামনে পাকা রাস্তার উপর রেখে যায়। পরবর্তীতে বাদীর পিতা তাকে বন্দর ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করলে ৪২ ঘন্টা পর বাদীর জ্ঞান ফিরে আসে। জ্ঞান ফেরার পর বাদী ব্যাংকে গিয়ে দেখেন যে তার চোরাই যাওয়া ০২টি এটিএম কার্ড দিয়ে অজ্ঞান পার্টির চক্রের সদস্যরা বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের বিভিন্ন ব্যাংকের বুথ থেকে ১০,৫০,০০০/- টাকা উত্তোলন করে নিয়ে যায়।

বাদির এরুপ অভিযোগের ভিত্তিতে সিএমপি পাহাড়তলী থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়।

মামলার প্রেক্ষিতে সিএমপি পাহাড়তলী থানার এসআই/মোঃ মনির হোসেন ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রিঃ বরিশাল জেলার কোতোয়ালী থানা এলাকা থেকে মামলার ঘটনার সাথে জড়িত অজ্ঞাত পার্টির প্রধান মোঃ সোহাগ ঘরামী ও বিপ্লব চন্দ্র অধিকারীকে এবং পাথরঘাটা থানা এলাকা থেকে শাহাদাত হোসেনকে আটক করেন।

গ্রেফতারকালে তাদের হেফাজত থেকে চেতনানাশক ঘুমের ঔষধ রিবোট্রিল ২.০ এম.জি, ১০ গ্রাম চেতনানাশক পাউডার, ইনজেকশনের সিরিঞ্জ ০৩টি এবং চেতনানাশক ঔষধ ডাবের পানির সাথে প্রয়োগ করে ভিকটিমের এটিএম কার্ডের মাধ্যমে চোরাইকৃত নগদ ৯,৭৫০ টাকা উদ্ধার পূর্বক জব্দ করেন।

ধৃত ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে তারা পলাতক অপর ব্যক্তিদের পরস্পর যোগ- সাজসে উচ্চ মাত্রার ঘুমের ঔষধ রিবোট্রিল ট্যাবলেট পাউডার করে ইনজেকশন সিরিঞ্জের সাহায্যে ডাবের পানিতে পুশ করে টার্গেট ভিকটিমের নিকট অপেক্ষাকৃত কমদামে উক্ত ঔষধ মিশ্রিত ডাব ভিকটিমের সামনে অক্ষত তাজা ডাব কেটে বিক্রী করে। তাদের টার্গেটকৃত ভিকটিম উক্ত ডাবের পানি পান করে কিছুক্ষনের মধ্যে গভীর ঘুমে অচেতন হয়ে যায়। তখন উক্ত অজ্ঞান পার্টি চক্রের সদস্যরা ভিকটিমের সর্বস্ব লুটে নেয়।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......