1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
ঘূর্ণিঝড় রেমালের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত মংপ্রু মার্মার পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন, আয়েরও কোন উৎস নেই ঝিনাইদহ চেক পোস্টে ২৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কালাইয়ে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে পশুর হাট। *মানবিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা-২০২৪ উপলক্ষে ৫০ টি দুস্থ পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম।* এলজিইডি’র বাস্তবায়নে মুকসুদপুরের বিলচান্দা গ্রামের মানুষ শহরের সুবিধা পেতে চলেছে সাগরিকা ও হালিশহর বড়পুল মহেশখাল পাড়স্থ পশুর হাট পরিদর্শনে সিএমপি পুলিশ কমিশনার “সাংবাদিকতা সংক্রান্ত নেতিবাচক লেখাগুলো ফেসবুকে প্রচার বন্ধ হোক”- “সাইদুর রহমান রিমন”।  ঝিনাইগাতীতে মিলন হত্যার আসামী কাজল গ্রেফতার র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন ‘আনসার আল ইসলাম’র সক্রিয় সদস্য কর্ণফুলী থানা এলাকা থেকে উগ্রবাদী পুস্তিকা সহ গ্রেফতার -০২।  সোনে মেরিনচর পাড়া প্রাথমিক ও নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয় আলীকদম উপজেলায় শিক্ষা ক্ষেত্রে অনন্য নিদর্শন

নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে লম্পট পিতা গ্রেফতার

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১২১ জন দেখেছেন

জুয়েল রানা বিশেষ প্রতিনিধি
(ময়মনসিংহ ফুলপুর)

নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে লম্পট পিতা গ্রেফতার হয়েছে এমনটা ঘটেছে ময়মনসিংহের ফুলপুর ৫নং সদর ইউনিয়নে ৫নং ওয়ার্ড বনগাঁও গ্রামে লম্পট আশ্রব আলী( ৪৮) আশ্রব পেশায় কল মিস্ত্রি। আশ্রব আলী (৪৮) কয়েকটি বিয়েও করেছে ৪৮ বছর বয়সে আশ্রব আলীর ৩ নাম্বার স্ত্রী বাড়ি থেকে চলে প্রায় ১ যোগ ধরে। পরে নিজ মেয়েকে ঘরে আটকে রেখে লাগাতার ধর্ষণ করে আসছিল নিজ মেয়েকে।দির্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ার পরে মেয়ে তার চাচির সাথে ধর্ষণের কথা বলেন পরে চাচির সাহায্যে মেয়ে বাড়ি থেকে চলে যায় মায়ের কাছে।লম্পট পিতা মেয়েকে বাড়িতে না পেয়ে।ফুলপুর থানায় হারানো জিডি করে জিডি তদন্ত করতে গিয়ে বেরিয়ে এলো মেয়েকে ধর্ষণের চাঞ্চল্যকর তথ্য। নিজের মেয়েকে (১৩) জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগে পিতা আশ্রব আলী(৪৮)কে শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) আদালতে পাঠিয়েছে ফুলপুর থানা পুলিশ।
ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উপজেলার বনগাঁও গ্রামের জনৈক মোঃ আশ্রব আলী(৪৮) ৭ সেপ্টেম্বর রাতে থানায় এসে সাধারন ডায়েরি করেন যে তার স্ত্রী ১২ বছর পূর্বে তাকে রেখে অন্য একজনকে বিয়ে করে চলে যায়। বর্তমানে সে ০১ ছেলে রুমান(১৪),ও ০১ মেয়ে(১৩)কে নিয়ে একই ঘরে বসবাস করছিল। গত ০৬/০৯/২৩ ইং তারিখ সন্ধা সাড়ে ০৬ ঘটিকায় তার মেয়ে (১৩) সকলের অজান্তে বাড়ি হতে কোথায় যেন চলে যায়। পরবর্তীতে বাড়িতে ফিরে না আসায় আশপাশের বাড়িসহ তাহার নিকটতম আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করে কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। সাধারন ডায়েরির আবেদন পেয়ে বিষয়টি তদন্ত করার জন্য এসআই তরিকুল ইসলাম ও এএসআই আবুল বাসেদকে দায়িত্ব দেয়া হয়। পরে এসআই তরিকুল ইসলাম ও এএসআই আবুল বাসেদ প্রাথমিক তদন্ত করার জন্য ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রকাশ্য ও গোপনীয় তদন্ত করে এলাকায় বিশ্বস্ত সোর্স মোতায়েন করেন। প্রাথমিক তদন্ত শেষে থানায় আসার কিছুক্ষণ পরে রাত অনুমান ২৩:৫০ ঘটিকায় ভিকটিম নিজেই এএসআই আবুল বাসেদ এর মোবাইলে ফোন করে জানান যে, ভিকটিমের পিতা মোঃ আশ্রব আলী একই ঘরে বসবাস করার সুবাদে ভিকটিমকে প্রতি রাতে হাত-পা বেঁধে, মুখ চেপে ধরিয়া জোরপূর্বক ধর্ষন করতো। উক্ত ঘটনা কারও নিকট প্রকাশ করলে, দা দিয়ে জবাই করে মেরে ফেলার হুমকি দিত। ভিকটিম সহ্য করতে না পেরে পালিয়ে তার মায়ের নিকট ঢাকা চলে যায়। পরবর্তীতে ভিকটিম ও তার মাকে থানায় এনে অভিযোগ গ্রহন করে পাষন্ড পিতা আশ্রব আলীর বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করা হয় এবং পিতা আশ্রব আলীকে গ্রেপ্তার করে শনিবার বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......