1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলায় “যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত” আসামি মোঃ সুমন গ্রেফতার।  বাঘায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত এক ,গুরুতর আহত দুই। আমতলীতে হিরন হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন মৃধা গ্রেপ্তার  সাজেকে কাচালং নদীতে ফুল ভাসানোর মধ্য দিয়ে বিঝু উৎসবের সুচনা পুলিশি তৎপরতা ও আন্তরিক ভূমিকায় মানসিক ভারসাম্যহীন (পাগল) মহিলার বাচ্চা প্রসবে সহযোগিতা । ভোটারদের টাকা দিতে বাঁধা দেওয়ায় ছুরিকাঘাতে চেয়ারম্যান সমর্থককে হত্যা। শেরপুর পুলিশ লাইন্সে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত শিকড় ঝিনাইগাতীর উদ্যোগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন সেবক, কামরুজ্জামান (বাবলু কেন্দ্রীয় কৃষি ও সমবায় বিষয়ক উপ-কমিটির (সদস্য) জামালপুরের সানন্দবাড়ীতে অসকস বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ঈদ সামগ্রী উপহার হতদরিদ্রদের

র‌্যাব-৭’র অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্র ও বিপুল পরিমান লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার এবং।আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার মোঃ হক সাবসহ আটক-০৪

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৬৪ জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:-

বাংলাদেশ আমার অহংকার এই ¯স্লোগান নিয়ে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোরালো ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব সৃষ্টিকাল থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, দুর্ধষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগনের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কতিপয় দুষ্কৃতিকারী ডাকাত দল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কসহ পার্শ্ববর্তী জেলার বিভিন্ন স্থানে ডাকাতির কারনে এলকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠে। উক্ত অভিযোগ প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম বর্ণিত এলাকায় গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। নজরদারির এক পর্যায়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, কতিপয় ডাকাতদল একটি পিকআপ যোগে আগ্নেয়াস্ত্র এবং ডাকাতির মালামালসহ চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার দিকে যাচ্ছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে অদ্য ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ইং তারিখ ভোর ০৫০০ ঘটিকার র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ থানাধীন বারইয়ারহাট এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাকা রাস্তার উপর একটি অস্থায়ী চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশী শুরু করে। এ সময় একটি সন্দেহজনক পিকআপ গাড়িকে থামানোর সংকেত দিলে উক্ত পিকআপটি না থামিয়ে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা কালে আসামী ১। মোঃ হক সাব প্রকাশ মাদক সম্রাট (২৩), পিতা- শাহআলম, সাং-খিলমুরারী, থানা-জোরারগঞ্জ, জেলা-চট্টগ্রাম ২। মোঃ সাইফুল ইসলাম @ রনি (২৪), পিতা- মোঃ আলমগীর হোসেন @ আলম, সাং- হিংগুলী, থানা- জোরারগঞ্জ, জেলা- চট্টগ্রাম, ৩। চাঁন মিয়া (২৮), পিতা-আঃ রহিম, সাং- চরপাড়া, জেলা- নারায়নগঞ্জ এবং ৪। সিজিল মিয়া @ সোহাগ (৩০), পিতা- মৃত তারা মিয়া, সাং- আকতাপাড়া, থানা- দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, জেলা-সুনামগঞ্জ’কে আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের হেফাজতে থাকা এবং তাদের নিজ হাতে বের করে দেয়া মতে ০১টি আগ্নেয়াস্ত্র, ০১টি কার্তুজ, ৩৪টি অটোরিক্সার ব্যাটারি, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ সরঞ্জামাদি এবং ০১টি পিকআপ জব্দসহ আসামীদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, ডাকাত দলটি হাইওয়ে এবং আন্তঃজেলা ডাকাতির সাথে জড়িত। এ দলের বেশিরভাগ সদস্য চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা। তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ডাকাতি করে মালামালসহ ঢাকার উদ্দেশ্যে গমন করে। ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঘরমুখী সাধারন মানুষের চলাচলের স্থানে পথচারীকে আটক করে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাদেরকে জিম্মি করে ভীতি প্রদর্শনের মাধ্যমে মূল্যবান জিনিসপত্র, স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা-পয়সা ছিনতাই/ডাকাতি করে থাকে বলে নিজ মুখে স্বীকার করেছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, বর্ণিত ডাকাত দলের সদস্যরা সেডান/মাইক্রোবাস এ ধরনের যানবাহন থামিয়ে ডাকাতি করার পরিকল্পনা করে। তারা আকস্মিক আক্রমণ করে যত দ্রুত সম্ভব সবকিছু ছিনিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করে। জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাত দলের নেতা জানায়, বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষ প্রায়ই মোটা অংকের টাকা নিয়ে চলাচল করে, বিশেষ করে যারা ব্যক্তিগত গাড়িতে যাতায়াত করে তারা ডাকাত দলের মূল টার্গেট।

উল্লেখ্য, সিডিএমএস পর্যালোচনা করে গ্রেফতারকৃত ০১ নং আসামী মোঃ হক সাব প্রকাশ মাদক সম্রাট এর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ এবং সীতাকুন্ড থানায় ডাকাতি, মাদক, চুরি, হত্যার চেষ্টা এবং অস্ত্র আইনসহ সর্বমোট ২০ টি মামলা এবং ০২ নং আসামী মোঃ সাইফুল ইসলাম @ রনি এর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ থানায় চুরি, হত্যার চেষ্টা ও মাদকসহ ০৪ টি মামলর তথ্য পাওয়া যায়।

গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত আলামত সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে ।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......