1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ভিকটিকে উদ্ধার ও এজাহার নামীয় প্রধান আসামি মোঃ মোস্তাফা কামালসহ আটক-০২ আমতলীতে যত্রতত্র গড়ে ওঠা ৪৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ। বদলগাছীতে ফায়ার সার্ভিস আসার পূর্বেই আগুন নিভাল গ্রামবাসী। সিডিএ’র নতুন চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ টেপির বাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নব গঠিত পরিচালনা  কমিটি গঠন।  চট্রগ্রাম,রিয়াজ উদ্দিন বাজার এর বিপরিতে, রাইফেল ক্লাব এলাকায় চার্জার ফ্যানের মূল্য বেশি,ফুলকলির মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য থাকায় জরিমানা। বাঘায় কবি সাহিত্যিক পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী ও বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ উদযাপন । কালাইয়ে আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত স্থানীয় এমপি তার বন্ধু প্রার্থীর পক্ষ নেয়ায় নির্বাচন প্রভাবিত আশংকায় প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলেন।   বটিয়াঘাটায় নারিকেল ফলনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঝুঁকিপূর্ণ সেতু পুনঃনির্মাণের দাবিতে লংগদুতে মানববন্ধন অনুষ্টিত

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ১৫ জুলাই, ২০২৩
  • ১০১ জন দেখেছেন

রুপম চাকমা, বাঘাইছড়ি :-১৫ জুলাই ২০২৩

রাঙামাটির লংগদু উপজেলার বগাচতর ইউনিয়নের ২ ও ৩ নং ওয়ার্ড গাউসপুর ও ফরেস্ট অফিস এলাকায় কাচালং নদীর অববাহিকায় খালের ওপর নির্মিত দীর্ঘদিনের পুরোনো, ঝুঁকিপূর্ণ ও জরাজীর্ণ সেতুটি পুনঃনির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন স্কুল-কলেজের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী।

 

শনিবার (১৫ জুলাই) সকাল ১১টায় গাউসপুর সেতু সংলগ্ন স্থানে ঝুঁকিপূর্ণ ও জরাজীর্ণ সেতুটি পুনঃনির্মাণের দাবিতে এলাকাবাসীর পক্ষে এ মানববন্ধনের আয়োজন করেন গুলশাখালী, বগাচতর ও ভাসান্যাদম ইউনিয়নের সচেতন জনসাধারণ।

 

বগাচতর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল বশর এর সভাপতিত্বে ও দীপংকর তালুকদার গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক রাকিব হাসান এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, গুলশাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শাহাদাৎ ফরাজী সাকিব, লংগদু উপজেলা নাগরিক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এবিএস মামুন প্রমুখ।

 

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, উপজেলা প্রশাসন এ সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে দু’পাশে লাল পতাকা ও সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিয়েছি আরো ৫বছর আগে। কিন্তু এখনো এর কোনো উদ্যোগ বা ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। সেতুটি দ্রুত পুনঃনির্মাণ না হলে ভেঙে যে কোনো সময় বড় দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ঘটতে পারে।

 

বক্তারা আরো বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ এ সেতুটির ওপর দিয়ে প্রতিদিন শতশত শিক্ষার্থী স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসায় যাতায়াত করেন। এছাড়াও তিনটি ইউনিয়নের যাতায়াতের একটি মাত্র রাস্তার উপর নির্মিত সেতুটি জরাজীর্ণ অবস্থায় কয়েকবছর যাবৎ পরে আছে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেতুটির উপর দিয়ে পারাপার হচ্ছে লক্ষাধিক মানুষ ও কয়েক মেট্রিক টন কাঁচা মাল। দেশ যখন উন্নয়নের মডেল হয়েছে আমরা কেন পিছিয়ে? ৭০ মিটারের এই সেতুটি সরকার চাইলে যেকোনো সময়ই করতে পারে। কিন্তু কথা বলার কেউ নেই, সবাই আশ্বাস দিয়েই যাচ্ছে। কোনো ধরনের দুর্ঘটনায় এদায় কেউ এড়াতে পারবে না। এলাকাবাসীর দাবি সেতুটি ভেঙ্গে দ্রুত পুনঃনির্মাণ করা হোক।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, ইউপি সদস্য আব্দুল করিম হাওলাদার, আবু মুছা ও আবু তালেব, আওয়ামী লীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন, ফারুক আহমেদ সহ স্থানীয় শিক্ষক, সাংবাদিক ও বিভিন্ন ইউনিয়নের ভুক্তভোগী কয়েকশ জনগণ।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......