1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলায় “যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত” আসামি মোঃ সুমন গ্রেফতার।  বাঘায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত এক ,গুরুতর আহত দুই। আমতলীতে হিরন হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন মৃধা গ্রেপ্তার  সাজেকে কাচালং নদীতে ফুল ভাসানোর মধ্য দিয়ে বিঝু উৎসবের সুচনা পুলিশি তৎপরতা ও আন্তরিক ভূমিকায় মানসিক ভারসাম্যহীন (পাগল) মহিলার বাচ্চা প্রসবে সহযোগিতা । ভোটারদের টাকা দিতে বাঁধা দেওয়ায় ছুরিকাঘাতে চেয়ারম্যান সমর্থককে হত্যা। শেরপুর পুলিশ লাইন্সে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত শিকড় ঝিনাইগাতীর উদ্যোগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন সেবক, কামরুজ্জামান (বাবলু কেন্দ্রীয় কৃষি ও সমবায় বিষয়ক উপ-কমিটির (সদস্য) জামালপুরের সানন্দবাড়ীতে অসকস বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ঈদ সামগ্রী উপহার হতদরিদ্রদের

বদলগাছীতে আওয়ামী লীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত।

  • আপডেট সময়ঃ শুক্রবার, ২৩ জুন, ২০২৩
  • ৫১ জন দেখেছেন

এনামুল কবীর এনাম বদলগাছী উপজেলা প্রতিনিধি নওগাঁ। গত ২৩ জুন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।  মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে সব আন্দোলন-সংগ্রাম সামনে রেখে  নেতৃত্ব দেওয়া  রাজনৈতিক দলটি এবার পা রাখছেন ৭৫ বছরে।

 

প্রতি বছরের মতো এবারও আওয়ামী লীগ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করছে উপজেলা আওয়ামী লীগ । নওগাঁর বদলগাছী উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে দলের ৭৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

 

দিবসটি উপলক্ষ্যে গত শুক্রবার বিকাল ৪টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন,  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, কেক কাটা, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

 

চারমাথা মোড়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু খালেদ বুলু’র সভাপতিত্বে ও গোলাম সাকলাইণ সুবেল এর সঞ্চালনায়  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ- ৪৮/০৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ ছলিম উদ্দীন তরফদার সেলিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ১৯৯৬ সালের জনতা মঞ্চ্য ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামুল কবীর। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,  উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মিজানুর রহমান কিশোর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম মন্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদক ভগিরত কুমার মন্ডল।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে  বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মাটি ও মানুষের দল। জনগণই আওয়ামী লীগের মূল শক্তি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ ভূখণ্ডে প্রতিটি প্রাপ্তি ও অর্জন সবই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই হয়েছে অন্য কারো না । মাতৃভাষা বাংলার মর্যাদা রক্ষা থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত বাঙালির অর্জন এবং বাংলাদেশের সব উন্নয়নের মূলেই রয়েছে একমাএ আওয়ামী লীগ।

 

বিশেষ অতিথি সাবেক সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামুল কবির বলেন, গত ৭ দশকের বেশি সময় ধরে গণমানুষের প্রতিষ্ঠান আওয়ামী লীগ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা ও ভাগ্য উন্নয়নে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। দীর্ঘ পথচলায় অধিকাংশ সময় আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিয়েছেন বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এবং তাঁর সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা। তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণেই আওয়ামী লীগ সুদৃঢ় সাংগঠনিক ভিত্তিতে  দাঁড়িয়েছে। এবং জনমানুষের আবেগ ও অনুভূতির বিশ্বস্ত ঠিকানা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের সফল নায়ক ছিলেন তৎকালীন আওয়ামী লীগ সভাপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি আরও বলেন, দেশের বৃহত্তম ও প্রাচীন রাজনৈতিক দলটি আওয়ামী লীগ ।  ১৯৭৫ সালের আগস্টে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল একটি চক্র, কিন্তু পারেনি।

 

বক্তারা বলেন, বদলগাছী-মহাদেবপুর আসনে যাকেই দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হবে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তাঁকেই জয়ী করা হবে। আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সরকার গঠন করে শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে  পিতার স্বপ্নের সুখী-সমৃদ্ধ, উন্নত ও আধুনিক সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

 

এসময় উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ইমামুল আল হাসান তিতু, সাধারণ সম্পাদক জনি আলম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ, মহিলা যুবলীগ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, উপজেলা ছাত্রলীগ সহ ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের অঙ্গ সহযোগী   সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

উল্লেখ্য, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী সভাপতি, টাঙ্গাইলের শামসুল হক সাধারণ সম্পাদক ও শেখ মুজিবুর রহমানকে (কারাবন্দি অবস্থায়) যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক করে গঠিত হয় আওয়ামী (মুসলিম) লীগের প্রথম কমিটি।

১৯৪৯ সালের ২৩ জুন পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী রোজ গার্ডেনে ‘পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ’ প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে  রাজনৈতিক দলটির যাত্রা শুরু । পরে অসাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক আদর্শের অধিকতর প্রতিফলন ঘটাতে এর নাম ‘আওয়ামী লীগ’ করা হয়।

 

১৯৫৪ সালের নির্বাচনে বিজয়ের পর ১৯৫৫ সালে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে এই দল ধর্মনিরপেক্ষতাকে আদর্শ হিসাবে গ্রহণ করে দলের নামকরণ হয় ‘পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী লীগ।’ মুক্তিযুদ্ধের পরে পাকিস্তান শব্দটি বাদ দিয়ে দলটি ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ’ নামে কার্যক্রম শুরু করে। স্বাধীন ঘোষণা করার পর থেকে প্রবাসী সরকারের সব কাগজপত্রে ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ’ নাম ব্যবহার  হয় বলে বক্তারা বলেন।

এনামুল কবীর এনাম বদলগাছী নওগাঁ

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......