1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শ্রীপুর পৌর ৬ নং ওয়ার্ড পূর্ব পাড়া গ্রামে মুরুব্বী,ছাত্র ও যুবকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে শেরপুরের শ্রীবরদীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় ধর্ষক গ্রেপ্তার জনাব আকবর আলী খান, পিপিএম, অফিসার ইনচার্জ, শ্রীপুর থানা। গাজীপুর জেলায় মার্চ/২০২৪ মাসের অপরাধ সভায় শ্রেষ্ট অফিসার নির্বাচিত হন। আমতলীতে ডায়রিয়ার প্রকোপ,হাসপাতালে তীব্র শয্যা সংকট র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ১২ বছরের শিশু আজিম হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি রনি আক্তার ০৮ বছর পর  গ্রেফতার। শেরপুরের ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে বিবাহ, অর্থ আত্মসাৎ প্রদানকারীর সহযোগী গ্রেপ্তার এশিয়ান টেলিভিশনের কুতুবদিয়া প্রতিনিধির উপর হামলা গোবিন্দগঞ্জে মাহবুর হত্যার আসামিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত বাগেরহাট কল্যাণ সোসাইটি’র ঈদ পূর্ণমিলনী সম্পন্ন জামিন চেয়ে আবারও আবেদনের প্রস্তুতি মিন্নি’র

পিতৃপরিচয়হীন হয়ে আদালতে গেল বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্ম নেওয়া শিশু।

  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ১২ জুন, ২০২৩
  • ৬৪ জন দেখেছেন

মোঃ রবিউল ইসলাম বিশেষ প্রতিনিধিঃ ১২ জুন, ২০২৩ ইং রাজশাহীর বাঘায় অজ্ঞাত পরিচয়ে  সন্তান প্রসবের পর হাসপাতালে মাকে রেখে সদ্য জন্ম নেওয়া পিতৃপরিচয়হীন শিশুকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। সোমবার (১২ জুন) বিকেলে শিশুকে আদালতে পাঠানো হয় বলে জানা গেছে।

 

পুলিশ জানায়,রোববার (১১ জুন)বিকেলে ৩৬/৩৮ বছর বয়সের মানষিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর  প্রসব(ডেলিভারি) রুমে চিকিৎসক ও নার্সের তত্বাবধানে কণ্যা সন্তান প্রসব করেন। ওই নারী নিজের নাম ঠিকানাও বলতে পারেননি। পরে তার পরিচয় না পাওয়ায় শিশুকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

জানা যায়, রোববার দুপুরে উপজেলা সদরে শাহদৌলা সরকারি কলেজের উত্তর দিকের আমগাছের তলায় ওই নারীকে বসে থাকতে দেখেন বাঘা পৌর সভার সাবিনা খাতুন নামের এক গৃহবধু। তিনি নিজ বাড়িতে চলে আসার পর একই দিন বিকেলে প্রতিবেশি তুহিনের বাসার গেটে সামনে প্রসব যন্ত্রনায় কাতরাতে দেখেন সেই নারীকে।

সাবিনা খাতুন জানান, তা দেখে সুবর্না নামের আরেক গৃহবধুসহ বিকেল ৪টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক উম্মে হাবিবা পরীক্ষার পর প্রসব ব্যথার যন্ত্রনা বুঝতে পেরে ডেলিভারি রুমে  পাঠান। সেখানে নার্সের তত্বাবধানে কন্যা সন্তান প্রসব করেন। নার্স দিলরুবা ইয়াসমিন জানান, ওই নারি নিজের নাম ঠিকানা কিছুই বলতে পারছিলেন না। তবে মা-সন্তান দুজনই সুস্থ রয়েছে।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আশাদুজ্জামান আসাদ জানান, অজ্ঞাত পরিচয়ে ভর্তি হওয়া ওই নারী মানসিক ভারসাম্যহীন। নিজের নাম ঠিকানা কিছুই বলতে পারেননি। পরে বিষয়টি থানায় অবগত করা হয়।

 

সোমবার সরেজমিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে জানা যায়,নিঃসন্তান দম্পত্তি অনেকেই শিশুটিকে নেওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু শিশুটির মাকে নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেননি কেউ। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আয়া শেফালি খাতুন জানিয়েছেন শিশু ও তার মাকে নিয়ে লালন পালন করতে রাজি আছেন তিনি।

 

এই বিষয়ে  বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ইসলাম বলেন,ওই নারির বিষয়ে খোঁজ নিয়ে পাওয়া যায়নি। সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় শিশুকে রাজশাহী আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালতের নির্দেশক্রমে শিশুকে ছোটমনি নিবাসে রাখা হবে। শিশুর মা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানান ওসি।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......