1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শ্রীপুর পৌর ৬ নং ওয়ার্ড পূর্ব পাড়া গ্রামে মুরুব্বী,ছাত্র ও যুবকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে শেরপুরের শ্রীবরদীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় ধর্ষক গ্রেপ্তার জনাব আকবর আলী খান, পিপিএম, অফিসার ইনচার্জ, শ্রীপুর থানা। গাজীপুর জেলায় মার্চ/২০২৪ মাসের অপরাধ সভায় শ্রেষ্ট অফিসার নির্বাচিত হন। আমতলীতে ডায়রিয়ার প্রকোপ,হাসপাতালে তীব্র শয্যা সংকট র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে ১২ বছরের শিশু আজিম হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি রনি আক্তার ০৮ বছর পর  গ্রেফতার। শেরপুরের ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে বিবাহ, অর্থ আত্মসাৎ প্রদানকারীর সহযোগী গ্রেপ্তার এশিয়ান টেলিভিশনের কুতুবদিয়া প্রতিনিধির উপর হামলা গোবিন্দগঞ্জে মাহবুর হত্যার আসামিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত বাগেরহাট কল্যাণ সোসাইটি’র ঈদ পূর্ণমিলনী সম্পন্ন জামিন চেয়ে আবারও আবেদনের প্রস্তুতি মিন্নি’র

হারিয়ে যাচ্ছে তথ্য প্রযুক্তির দাপটে চিরচেনা “ডাকবক্স”

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ১ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৩৪ জন দেখেছেন

মোহাম্মদ  মিলন আকতার, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :- দেশের উত্তরের জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে এক সময় যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ছিল ডাকযোগ । দূর-দূরান্তে বসবাসরত আত্মীয়-স্বজন, পরিবার- প্রিয়জন হৃদয়ের ভাব ব্যক্ত করত চিঠি-পত্রের মাধ্যমে । অনেকদিন পর মানুষ খোঁজ- খবর পেত পত্রের মাধ্যমে । সমস্ত আবেগ, অনুভূতি আর  মায়া বহন করত সেই চিঠি- পত্র । সেই রাখালিয়া মেঠো পথ পেরিয়ে মানুষ ছুটি আসত চিঠি দিতে ডাকযোগে  অর্থাৎ ডাকবাক্সে। আজ আধুনিকতার ছোঁয়ায় সেই স্মৃতিময় দিন যেন অতীত । বলছিলাম ঠাকুরগাঁও জেলার কথা  –

ডিজিটাল তথ্য প্রযুক্তির দাপটে হারিয়ে যাচ্ছে ডাক ঘরের “ডাকবক্স”। এখন আর আগের মতো ডাক অফিসে লোকজনের আনাগোনা চোখে পড়ছেনা। ফেলে আসা দিনগুলোতে বার্তা প্রেরক ও মনের ভাব আদান-প্রদান ক্ষেত্রে ডাক বিভাগের বিষয়টি অতি গুরুত্বের সাথে উচ্চারিত হত। আশির দশক পর্যন্ত যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম ছিল চিঠি এবং জরুরি বার্তার জন্য টেলিগ্রাফ এবং টেলিফোন। জেলা শহর ব্যতীত গ্রামীণ জনপদে টেলিফোনের ব্যবহার অত্যন্ত সীমিত ছিল।

 

পরিবার-প্রিয়জনের একটি চিঠির জন্য অপেক্ষমান হয়ে থাকতে হতো । এখন আর সেই দিন নেই। তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নে দিন বদলের ন্যায় পাল্টে গেছে সবকিছু। এখন নিমিশে খবরাখবর পৌঁছে যাচ্ছে ঘরে বসে বিশ্বের যেকোন প্রান্তে। প্রতি সেকেন্ডে আলাপ চলছে অত্যাধুনিক মোবাইলে।

 

তথ্যপ্রযুক্তির যুগে ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা সহ ইউনিয়ন ভিত্তিক ডাকঘরে অতীতে যেভাবে ডাকবক্সে চিঠিপত্র আদান প্রদান করা হতো এখন তা হারিয়ে যাচ্ছে  । জেলা , উপজেলা গুলোতে ডাকঘর  চোখে পড়লেও ইউনিয়ন গুলোতে ভিন্ন চিত্র । নেই ডাকঘর নেই ডাকবক্স।

 

ক’জন শিক্ষার্থী জানান, বর্তমানে ই-মেইল, ইমো ও ফেসবুক ব্যবহারের কারণে মানুষ আর আগের মত চিঠি লিখতে চায় না। ফলে আর একটি ঐতিহ্য আমাদের মাঝ থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে। ধীর গতির কারণে মানুষ মুখ ফিরিয়ে কুরিয়ার বা অন্য মাধ্যমে চিঠিপত্র পাঠাচ্ছেন।

 

বর্তমান সময়ে হরেক রকমের মোবাইলসহ

অত্যাধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির ফলে এলাকার গ্রামাঞ্চলের সহজ-সরল নারী-পুরুষদের চিঠিপত্র আদান -প্রদান করতে ডাক বিভাগে আসতে দেখা যায় না।চিরচেনা ঐতিহ্যবাহী ডাকঘর “ডাকবক্স” দিন বদলের সনদ বাস্তবায়নের ফলে ডিজিটাল যুগে অনায়াসে কাল গর্ভে হারিয়ে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......