1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
দক্ষিণ হালিশহরে একাডেমি কাপ ফুটবলের উদ্ধোধন: ট্রাইবেকারে পদ্মা-মেঘনা জয়ী ঝিনাইগাতীতে জাতীয় বীমা দিবস উপলক্ষে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্টিত ২০ রমজানের মধ্যে জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিকদের বেতন-বোনাস প্রদানের দাবি ফুটপাত দখলকারীরা কীভাবে বিদ্যুৎ পায়, প্রশ্ন মেয়র রেজাউলের, “নতুন কারিকুলামের চ্যালেঞ্জে অভিভাবকগণও সম্পৃক্ত”-ইপিজেড কর্ণফুলী মডেল স্কুলের অনুষ্ঠানে বক্তারা চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন’র পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হত্যাকান্ডে জড়িত আসামির স্বীকারোক্তি ভিডিও ভাইরাল; আদালতে হত্যা মামলা দায়ের র‌্যব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে, ফেনী এবং চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৬টি কিশোর গ্যাং গ্রুপের প্রধানসহ আটক- ২৮ প্রধানমন্ত্রী নিজ হস্তে রাষ্ট্রপতি পদক পড়িয়ে দিলেন বাদলগাছী থানা অফিসার ইনচার্জ কে। প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল পদকে ভূষিত হলেন বরগুনার পুলিশ সুপার মোঃ আবদুস ছালাম

বান্দরবানে জমি বুঝে পেতে ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের সংবাদ সন্মেলন

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩
  • ৫১ জন দেখেছেন

টি আই, মাহামুদ,জেলা প্রতিনিধি (বান্দরবান) :-বান্দরবানের লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নে ডলুছড়ি মৌজার ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠি ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের মানুষ তাদের জন্য ৫ একর করে জমি বরাদ্ধ দেয়ার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

আজ ৪ মার্চ (শনিবার) লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নের ডলুছড়ি মৌজার জুমিয়া পরিবারের ব্যানারে ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ডলুছড়ি মৌজার বিশয়চন্দ্র ত্রিপুরা। এসময় ডলুছড়ি মৌজার ফদরাম ত্রিপুরা কারবারী, জয়চন্দ্র ত্রিপুরা, বৈশুরাম ত্রিপুরা,অনারাং ত্রিপুরা, জরাং ত্রিপুরা, ওয়াশিং ত্রিপুরা, সাকোব ত্রিপুরা, শুময়েল ত্রিপুরা, জাকেলা ত্রিপুরা এবং বান্দরবান প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চুসহ সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত ডলুছড়ি মৌজার বিশয়চন্দ্র ত্রিপুরা বলেন, বান্দরবান জেলার লামা উপজেলাধীন সরই ইউনিয়নের ডলুছড়ি মৌজার বেশ কিছু জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে, আর তারই প্রেক্ষিতে আমরা এই জমির বিরোধ নিরসনে জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করেছিলাম। এর ফলে ২০২২ সালের ১৬ আগষ্ট জেলা প্রশাসক ও পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর এর উপস্থিতিতে আমাদের প্রত্যেককে ৫ একর করে জমি দেওয়ায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে, যেই সিদ্ধান্ত শুনে আমরা খুশি। তবে আমাদের এই জমি গ্রহণে আমাদের এলাকার মথি ত্রিপুরা, রংধজন ত্রিপুরা, লাংকম ম্রো, রেংয়ে ম্রোসহ কয়েকজন ব্যক্তি এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে এবং নানা ধরণের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে জমি বুঝে না নিতে।

 

বিশয়চন্দ্র ত্রিপুরা আরো বলেন, আমরা ত্রিপুরা সম্প্রদায় আর কারো সাথে জমি নিয়ে ঝগড়া-বিবাদ করতে চায় না, আমরা চাই সরকারী ভাবে আমাদের নামে ৫একর করে জমি দেওয়া হোক আর তাতেই আমরা খুশি।

 

ডলুছড়ি মৌজার ফদরাম ত্রিপুরা কারবারী বলেন, আমরা এখন আমাদের স্বগোত্রীয়দের হামলা ও মামলার ভয়ে আছি, আর তাই প্রশাসন যদি বিষয়টির প্রতি সুদৃষ্টি প্রদান করে তাহলে আমরা এই জমি নিয়ে চলতি বছর জুম চাষ করে পরিবার পরিজন নিয়ে স্বাভাবিক ভাবে জীবনযাপন করতে পারবো।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......