1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
খুলনা বটিয়াঘাটা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন জমে উঠেছে,চেয়ারম্যান পদে লড়াই হবে রাহুল,শিমু,মিলন ও নিতাই মধ্যে। বদলগাছী উপজেলার মিঠাপুর ইউনিয়নের ২৪ ও ২৫ অর্থ বছরের প্রায় সাড়ে ৪ কুঠি টাকার উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা করেন চেয়ারম্যান । ঝিনাইগাতীতে আদিবাসী শিশু ধর্ষণের দায়ে গ্রেপ্তার-১ মহাসড়কে অপরিকল্পিত ব্রিজ ভোগান্তির শেষ নেই লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষের সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদা দাবি ও চাঁদা আদায়সহ নগ্ন ভিডিও ধারণের ঘটনায় ভুয়া সাংবাদিকসহ গ্রেফতার-০৩ চট্টগ্রামে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’মোকাবেলায় বিভিন্ন কর্মসূচির তৎপরতায় মেট্রোপলিটন পুলিশ বাবাকে পিটিয়ে পঙ্গু করার অভিযোগ উঠেছে ছেলে এবং পুত্র বধুর বিরুদ্ধে গভীর নলকূপের ট্রান্সফরমার চুরি করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে অজ্ঞাত এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল হোসেন গ্রেফতার।  ঘূর্ণিঝড় রেমালে বন্দরের সব কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা অ্যালার্ট-৪ জারি

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক সংসদীয় আসন বরগুনা-৩ পুর্নবহালের দাবীতে সোচ্চার দুই উপজেলার জনগণ

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৮৪ জন দেখেছেন

সাইফুল্লাহ নাসির,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ জনগুরুত্বপূর্ণ এবং ভৌগোলিক ও প্রাকৃতিক বিষয় বিবেচনা করে বরগুনা-৩ (আমতলী-তালতলী) সংসদীয় আসনটি পুর্নবহালের দাবীতে সোচ্চার দুই উপজেলার জনগন।

 

এই আসনটি পুর্নবহালের দাবীতে দুই উপজেলার চার লক্ষাধিক মানুষ দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ভাবে দাবী জানিয়ে আসছে।বঙ্গোপসাগর ও পায়রা নদীবেষ্টিত এ সংসদীয় আসনটি বিলুপ্তি হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন জনগন।জানা গেছে,ব্রিটিশ শাসনামল থেকে বরগুনা-৩ (আমতলী-তালতলী) আসনটি একটি স্বতন্ত্র আসন ছিল।স্বাধীনতার পর থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বরগুনা জেলায় সংসদীয় আসন ছিল ৩ টি।

২০০১ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তৎকালীন সংসদ সদস্য মজিবর রহমান তালুকদার এ আসন (আমতলী -তালতলী) থেকে মনোনয়ন পত্র দাখিলের পর আকস্মিক মৃত্যু হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই আসন থেকে নির্বাচন করে  জয়লাভ করেছিলেন।সেই থেকে এলাকাবাসী আসনটি প্রধানমন্ত্রীর আসন বলে জানে আর প্রধানমন্ত্রীও বলে থাকেন এটি তার আসন।

 

কিন্তু ২০০৮ সালের ১/১১’র  তত্ত্বাবাধয়ক সরকার সীমানা নির্ধারন অধ্যাদেশ গঠন ১৯৭৬ এর (২) ধারায় প্রশাসনিক।কাঠামো,আয়তন,বাস্তবিক অবস্হা ও জনসংখ্যা  বিবেচনা না করে এ আসনটি বিলুপ্তি করে।ফলে বৃটিশ আমল থেকে চলে আসা এই এলাকার জনগন চরম ভোগান্তিতে পরেন।

 

এ আসনটি পুর্নবহালের দাবীতে আমতলী তালতলী মুক্তিযোদ্ধা,রাজনৈতিক,সামাজিক, সাংবাদিক, শিক্ষক সহ সর্বস্তরের জনগন ঐক্যবদ্ধ।

 

এ বিষয় আমতলী পৌর সভার সরকার দলীয় প্রভাবশালী মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, আমতলী-তালতলী মানুষের দুর্দশা লাঘবের জন্য এই আসনটি পুর্নবহাল দরকার।সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন  উদীচীর আমতলী উপজেলা শাখার সভাপতি বাবু অশোক মজুত বলেন, জনসংখ্যা,ভৌগোলিক অবস্হান ও যোগাযোগ ব্যবস্হা বিবেচনা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নির্বাচন কমিশনের কাছে আসনটি পুনর্বহালের আবেদন করছি।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি বিএমএসএস এর কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও আমতলীর সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল্লাহ নাসির বলেন,আমতলী- তালতলী’র মানুষ দীর্ঘদিন ধরে এই আসনটি পুর্নবহালের দাবি জানিয়ে আসছে।আশা করি তাদের যৌক্তিক দাবি মেনে নিয়ে নির্বাচন কমিশন আমতলী -তালতলীর মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য (বরগুনা-৩) আসনটি পুর্নবহাল করবেন।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......