1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্লাব, কেন্দ্রীয় স্হায়ী কমিটির পক্ষে,শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন।  অমর একুশে ফেব্রুয়ারি “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস” উপলক্ষে গড়গড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। রাজশাহীর বাঘায় যথাযথ মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। যোগ্য ও দক্ষতার সাথে খোকা নতুন লুকে টেলিভিশনের পর্দায় আসার সম্ভাবনা। ঝিনাইগাতী শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন আমতলীতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি, বাঘায় রুকুনুজ্জামান রিন্টু ভালুকায় একুশে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি’র শ্রদ্ধা- কালাইয়ে মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

সাজেকে গাছের ডালে দুলছে আমের মুকুল,লাখ টাকার স্বপন্ন দেখছেন আম চাষিরা

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৬৮ জন দেখেছেন

রুপম চাকমা বাঘাইছড়ি উপজেলা প্রতিনিধি:

রবিবার ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের বামে বাইবাছড়াও শুকনোছড়া এলাকায় গাছের ডালে হিমেল হাওয়ায় দুলছে আমের মুকুল। চারদিকে ছড়িয়ে পড়ছে মুকুলের সুঘ্রাণ। মধু সংগ্রহে মৌমাছিরা ভিড় করছে আম গাছের ডালে ডালে। মধুমাসের আগমনী বার্তা শোনাচ্ছে আমের চোখ জুড়ানো মুকুলগুলো।

 

দেখা যায়, বাঘাইছড়ি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রত্যান্ত পাড়া মহল্লায় রকমারি আমের গাছ। আর গাছের ডালে ডালে নুয়ে পড়েছে আমের মুকুল।

 

গাছে গাছে আমের মুকুল গজাতে শুরু করেছে। তবে আমের ফলন নির্ভর করছে আবহাওয়ার ওপর। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর আমের বাম্পার ফলন হবে বলে মনে করছেন স্থানীয়  আম চাষিরা। এখন পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় মুকুলে ভরে গেছে ব্যক্তি উদ্যোগে লাগানো আম গাছগুলো।

 

বামে বাইবাছড়া গ্রামের স্থানীয়রা বিশ্বমুনি চাকমা (কার্বারী) সাজেক পাহাড় কে জানান, প্রায় দুই সপ্তাহ আগে থেকে আম গাছে মুকুল আসা শুরু হয়েছে। কিছু গাছ মুকুলে ছেয়ে গেছে। বেশির ভাগ গাছে মুকুল বের হচ্ছে। মুকুল আসার পর থেকেই গাছের পরিচর্যা করা হয়। মুকুলের বিভিন্ন রোগ বালাইয়ের আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে কৃষি বিভাগের পরামর্শও নিচ্ছেন।

সাজেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অতুলাল চাকমা বলেন সাজেকে মাচালং, ভুয়াছড়ি, উজোবাজারসহ প্রায় গ্রামে গ্রামে আম চাষের ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। আবহাওয়া পরিবেশ ভালো থাকলে এই বছরে অনেক আম চাষি ৪/৫ লক্ষ টাকার আম বাজারে বিত্রুয় করতে পারবে বলে ধারনা করেন।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......