1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্লাব, কেন্দ্রীয় স্হায়ী কমিটির পক্ষে,শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন।  অমর একুশে ফেব্রুয়ারি “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস” উপলক্ষে গড়গড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। রাজশাহীর বাঘায় যথাযথ মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। যোগ্য ও দক্ষতার সাথে খোকা নতুন লুকে টেলিভিশনের পর্দায় আসার সম্ভাবনা। ঝিনাইগাতী শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন আমতলীতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি, বাঘায় রুকুনুজ্জামান রিন্টু ভালুকায় একুশে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি’র শ্রদ্ধা- কালাইয়ে মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

শব্দদূষণে মানুষ বধির হলেও আইনের প্রয়োগ নেই।

  • আপডেট সময়ঃ শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৪৯ জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিনিয়ত কারণে অকারণে ঘরে বাইরে শদ্বদুষন  সৃষ্টি করা হচ্ছে এতে করে মানুষ দিন দিন বধির হয়ে যাচ্ছেন হাইড্রোলিক হন বাজানো উচ্চুঃস্বরে নাচ-গান মাইক

বাজানো ভবন নির্মাণ কলকারখানা দোকানসহ নানাভাবে শব্দদূষণ করা হচ্ছে। এ  বিষয়ে আইন থাকলেও অনেকে না  জানার কারণে বিষয়টি স্বাভাবিকভাবে মেনে নিচ্ছেন। পুলিশে অভিযোগ করলেও খুব একটা প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না বলে শব্দদূষণ মানুষের জন্য দৈনন্দিন বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে পরিবেশ অধিদপ্তর আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন পরিবেশবিদরা এ কথা বলেন। তারা বলেন মানুষের মধ্যে সচেতনতা না থাকায় তারা ঘরে বাইরে শদ্বদুষণ সৃষ্টি করছেন অনেকে এসব শব্দে অভ্যস্ত হওয়ায় সেটিকে স্বাভাবিকভাবে

শব্দদূষণে মানুষ মেনে নিচ্ছেন। শব্দদূষণ কারা আইনি অপরাধ। এর জন্য সর্বনিম্ন এক মাস থেকে ছয় মাসের জেল ও জরিমানা হতে পারে তা অনেকে জানেন না বলে প্রতিনিয়ত শব্দদূষণ হচ্ছে । এজন্য মানুষের সচেতনতা তৈরি ও আইনি প্রয়োগে সরকারকে কঠোর হওয়ার আহ্বান ও জানান তারা। অধ্যাপক আহমদ কামরুজ্জমান মাজুমদারের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন পারিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট খোদেজা নাসরিন আক্তার হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাফাঁ) যুগ্না সস্পাদক আলমগীর কবির পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের চেয়ারম্যান আবু নাসের খান । এসময় খোদেজা নাসরিন বলেন বর্তমান মানুষ অনেক এগিয়ে যাচ্ছেন তারা শব্দদূষণে বিষয়ে  সচেতন হচ্ছেন। সড়কে শব্দদূষণ প্রতিরোধে ট্রাফিক পুলিশকে আর ও বেশি প্রশিক্ষিত করতে হবে ।

সব্দ দুষণের  ক্ষতিকর বিষয়গুলো মানুষের সামনে নানাভাবে তুলে ধরার আহ্বান জানান তিনি আলমগীর কবির বলেন গত ২৫ বছর ধরে শব্দদূষণ ও পরিবেশ রক্ষা নিয়ে কাজ করা হলে ও কোনো প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না। শব্দদূষণের কারণে মানুষ বধির হয়ে গেলেও তা বুঝতে বুঝতে পারছে না মানুষ ঘরে বাইরে নানা ধরনের দূষণের মধ্যে পড়ছেন। দেশের ৬৪ জেলার কোথায় কী পরিমাণে শব্দদূষণ হচ্ছে সে সংক্রান্ত পরিবেশ অধিদপ্তরের একটি প্রকল্প তৈরি করা হয়েছে

 

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......