1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
গভীর নলকূপের ট্রান্সফরমার চুরি করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে অজ্ঞাত এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল হোসেন গ্রেফতার।  ঘূর্ণিঝড় রেমালে বন্দরের সব কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা অ্যালার্ট-৪ জারি চট্টগ্রামে স্মরণ সভা ইরানের নিরাপত্তা আরো জোরদার করা প্রয়োজন – নিজামী কালাই এ জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদ্বোধন হারুন অর রশিদ রিমেলের তান্ডবে বাঁধ ভেঙ্গে তলিয়ে গেছে আমতলীর নিম্নাঞ্চল  ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগ নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ করা কে এই আবদুর রহমান? আমতলীতে ‘রেমাল’ মোকাবেলায় জরুরী সভা, প্রস্তুত ১১১ সাইক্লোন শেল্টার তেতুলিয়ায় উপজেলা নির্বাচন চলাকালীন সময়ে সৌন্দর্য বর্ধক বাঁশঝাড় উধাও ময়মনসিংহের ফুলপুরে দুস্থ অসহায় ৪২৬০জন পেলেন ভিজিএফ কার্ড

র‍্যাব-৭’র অভিযানে আন্তঃজেলা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতার-০৪

  • আপডেট সময়ঃ শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৪৩ জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:- বাংলাদেশ আমার অহংকার এই স্লোগান নিয়ে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোরালো ভূমিকা পালন করে আসছে। র‍্যাব সৃষ্টিকাল থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, দুর্ধষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগনের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

গত ০৫ জানুয়ারি ২০২৩ তারিখে আবুল খায়ের টোবাকো কোম্পানীর ফটিকছড়ি জোনের ডিলার তার দোকানের ঘুমাচ্ছিল। রাত আনুমানিক ১১৩০ ঘটিকায় অজ্ঞাতনামা কতিপয় ডাকাত দল দোকানটি ভেঙে দোকানে প্রবেশ করে তাকে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে হাত ও মুখ বেঁধে ফেলে। পরবতর্ীতে ডাকাত দল উক্ত দোকান হতে প্রায় ১ লাখ আবুল বিড়ি, ৭৮ হাজার ম্যারিজ সিগারেট, ২ লাখ টাকা এবং ২টি মোবাইল সেট নিয়ে যায়।

 

এ ঘটনায় আবুল খায়ের টোবাকো কোম্পানীর ফটিকছড়ি জোনের ডিলার চট্টগ্রাম জেলার ভথজপুর থানায় অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং-০৬, তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিঃ, ধারা-৪৫৭/৩৮০ পেনাল কোড ১৮৬০।

 

কিছুদিন পূর্বে ভথজপুর থানা পুলিশ আলাউদ্দিন ও রিপন নামে দুজন ডাকাত দলের সদস্যকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় এবং তাদের কাছ থেকে আরও কয়েকজন ডাকাত দলের সদস্যের তথ্য পায়। এ সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্যদের গ্রেফতারের জন্য ভথজপুর থানা পুলিশ কতর্ৃক র‍্যাব-৭, চট্টগ্রামকে অনুরোধ করে। র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম উক্ত সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্যদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা তৎপরতা ও ছায়া তদন্ত অব্যাহত রাখে। র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম গত ০৮ এবং ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ইং তারিখে চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং, হালিশহর এবং কুমিল্লা জেলায় অভিযান পরিচালনা করে ৭৮০০ মেরিজ সিগারেট এবং নগদ ৩৬,০০০ টাকা উদ্ধারসহ সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের লিডার আসামী ১। মোঃ মামুন(৩৪), পিতা-মৃত. হাসমত আলী, সাং-বেলানগর, থানা-দাউদকান্দী, জেলা-কুমিল্লা এবং তার অপর ৩ সহযোগী ০২। মোঃ আলী(৩৮), পিতা-মৃত. হাসমত আলী, মাতা-সাজিয়া বেগম, সাং-বেলানগর, খন্দকার বাড়ী, থানা-দাউদকান্দী, জেলা-কুমিল্লা, ০৩। মোঃ এনায়েত উল্লাহ @ শান্ত(২৮), পিতা- মোঃ শাহজাহান, সাং-পশ্চিম বাগিচাগাঁও, থানা-কোতায়ালী, জেলা-কুমিল্লা এবং ৪। মোঃ রাসেল(২৫), পিতা-মৃত. ঝারু মিয়া, সাং-বেলানগর, থানা-দাউদকান্দী, জেলা-কুমিল্লাদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা স্বীকার করে তারা আন্তঃজেলা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রীয় সদস্য। জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায়, তারা বর্ণিত মামলার ঘটনাস্থলে নাইট গার্ড এর হাত-মুখ বেধে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ডাকাতি করেছে বলে স্বীকার করে।

 

গ্রেফতারকৃত আসামী সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......