1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শেখ ফজলুল হক মনি স্মৃতি সংসদ কর্তৃক আয়োজিত পিকনিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংসদ গোলাম সরোয়ার টুকু’র শুভেচ্ছা বিনিময় চট্টগ্রামে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম কে অ্যাম্বুলেন্স প্রদানে পিএইচপি ফ্যামিলি আমতলী পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিক বরাদ্দ। বঙ্গলতলি বোধিপুর বন বিহারে ১০তম মহা সংঘদান উদযাপন শেরপুরে অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার “পরিমার্জিত কারিকলম দক্ষতা অর্জনে শিক্ষক প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই”-আদর্শ শিক্ষক ফোরামের শিক্ষক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন- জাতীয় দৈনিক সমকালে ‘বড় বোঝা হৃদয়ের ছোট্ট কাঁধে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ ,পেলেন ভ্যানগাড়ী।। আমতলীতে গরুসহ চোর গ্রেপ্তার সিএমপি, পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের ইপিজেড থানার দ্বিবার্ষিক পরিদর্শন সম্পন্ন।

বিভিন্ন পত্রিকায় নিউজ হওয়ায় সায়েরা সার্জিক্যাল ক্লিনিক সিলগালা

  • আপডেট সময়ঃ শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৩৮ জন দেখেছেন

ক্রাইম রিপোর্টার: গত ২৩শে জানুয়ারি মঙ্গলবার দৈনিক যশোর ও কল্যাণ পত্রিকা সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ” সিজারের পরে পেটে গজ রেখে সেলাই করাই মৃত্যু পথযাত্রী প্রসূতি” শিরোনামে নিউজ প্রকাশ হওয়ায় ঝিকরগাছার বাঁকড়ায় সায়েরা সার্জিক্যাল ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

 

২৪ শে জানুয়ারি বুধবার সকালে যশোর জেলা সিভিল সার্জন বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস এর নির্দেশনায় ঝিকরগাছা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা রাশেদুল আলম ওই ক্লিনিকটি অনির্দিষ্টকালের জন্য সিলগালা করে দিয়েছেন  বলে জানাযায়।

 

এসময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা: প্রতাপ কুমার রায়, ডা: আনোয়ার জাহিদ ও মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট সাইফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

 

ঝিকরগাছা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা রাশেদুল আলম জানান, বিভিন্ন গণমাধ্যমে নিউজ প্রকাশের পর যশোর জেলা সিভিল সার্জন বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস  সায়েরা সার্জিক্যাল ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা করার নির্দেশ দেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে  বুধবার ক্লিনিকটি সিলগালা করে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরবর্তী সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত ক্লিনিক বন্ধ থাকবে। এ নির্দেশনা অমান্য করলে কঠোর শাস্তির বিধান রয়েছে।

 

উল্লেখ্য : গত ১৪ই নভেম্বর বাঁকড়া সায়েরা সার্জিক্যাল ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সিজারিয়ান অপরেশনের সময় মুসলিমা খাতুন ওরফে ববিতা  (২৮) নামে এক রোগীর পেটে গজ (মফ) রেখে সেলাই করে দেয়ার অভিযোগ ওঠে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে।

 

এ ঘটনার কিছুদিন পরে রোগীর ঐ স্থানে ব্যথা হতে থাকে এমনকি ঐ স্থানে পচন ধরতে শুরু করায় পুণরায় অপারেশন করে ওই রোগীর পেট থেকে গজ (মফ) অপসারণ করেন চিকিৎসকরা।

 

উক্ত ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হওয়ার পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝে এক প্রকার বিষয়টি নিয়ে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করে। এঘটনায় উদ্বর্তন  কতৃপক্ষের নিকট সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে ক্লিনিকটি বন্ধ সহ ক্ষতিপূরণ দাবী জানান ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসী।

 

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......