1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
খাজা শাহ্ নূর দরবেশ মৌলা (রহঃ) এঁর চন্দ্রবার্ষিকী ওফাত শরীফ উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পতেঙ্গা মডেল থানা পরিদর্শনে সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায় নাটোর জেলার লালপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তারুণ্যের জয়গান। বটিয়াঘাটা লবণচরা এলাকায় পুত্রের নির্যাতে বাবা পঙ্গু তালতলীতে সভা সমাবেশে ব্যস্ত তিন চেয়ারম্যান প্রার্থী মুকসুদপুরে পুনরায় কাবির মিয়া ও কাশিয়ানীতে মোক্তার হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত জয়পুরহাটের কালাইয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু আলীকদমে সংরক্ষিত বনের গাছ চুরি বরখাস্ত ৩ কর্মকর্তা-কর্মচারী বাসের মধ্য থেকে ১০ বোতল ফেনসিডিল সহ এক যাত্রীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ যশোর

সকল জাতিগোষ্টি একসাথে বসবাস করার পাশাপাশি সন্ত্রাসী ও অপরাধীদের থেকে দুরত্ব বজায় বজায় রাখুন রাজভিলায় পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ২৮ জন দেখেছেন

টি আই, মাহামুদ জেলা প্রতিনিধি (বান্দরবান) আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ও যন্ত্র ব্যবহারের মাধ্যমে বান্দরবানে কৃষিখাতে বিপ্লব ঘটানোর লক্ষ্যে কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ করেছেন পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। বিতরনকৃত কৃষি উপকরণের মধ্যে ছিল কম্বাইন্ড হারভেস্টিং মেশিন, ট্রান্সপ্ল্যান্টার ও পাওয়ার টিলার। আধুনিক এই যন্ত্রপাতি ব্যবহারের ফলে কৃষকরা এখন খুব কম সময়ে এবং সহজেই ধান রোপন ও কর্তন করতে পারবে। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড ও কৃষি বিভাগের সহায়তা এইসব আধুনিক কৃষি যন্ত্র বিভিন্ন সমিতির মাঝে প্রদান করা হয়েছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে কৃষকদের পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, জেলা পরিষদ ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)এর বাস্তবায়নে প্রায় ৯ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে রাজবিলা ইউনিয়নে বিভিন্নস্থানে নির্মিত ব্রীজ, বৌদ্ধ বিহার, সেচ ড্রেইন, সড়ক, বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো: সাইফুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: শাহ্ আলম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরোজ, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্যসাপ্রু মারমা, কৃষি বিভাগের উপ পরিচালক এম এম শাহনেয়াজ, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মো.ইয়াছির আরাফাত, পার্বত্য জেলা পরিষদ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো.জিয়াউর রহমান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)এর নির্বাহী প্রকৌশলী জিয়াউল ইসলাম মজুমদারসহ জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং এলাকার চাষিরা উপস্থিত ছিলেন। এই উপলক্ষে রাজবিলা ইউনিয়ন পরিষদে মাঠে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য মন্ত্রী বলেন, পাহাড়ের উন্নয়ন এখন সবার মুখে মুখে। এখন পাহাড়ের কৃষিজ ফলমুল পেতে সমতলের বাসিন্দারা আগ্রহী হয়ে বসে থাকে। একসময় পার্বত্য জেলার অনেক দুর্গম এবং কষ্টসাধ্য এলাকা হলে ও বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর পার্বত্য চট্টগ্রামের ব্যাপক উন্নয়ন কাজ তরান্বিত হয়েছে যার সুফল পাচ্ছে সাধারণ জনগণ। এসময় পার্বত্যমন্ত্রী উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে সকল জাতিগোষ্টিকে একসাথে বসবাস করার পাশাপাশি সন্ত্রাসী ও অপরাধীদের থেকে সাধারণ জনগণকে দুরত্ব বজায় রেখে জীবনধারণের আহবান জানান। মন্ত্রী বলেন,পাহাড়ের উন্নয়নে অনেক সময় অনেক কুচক্রী মহল কার্যক্রম পরিচালনা করে উন্নয়ন বাঁধা করতে চায় আর এই দুষ্ট প্রকৃতির ব্যক্তি থেকে সবাইকে সচেতন ও সাবধান থাকতে হবে। কৃষকদের আধুনিক যন্ত্রপাতি বিতরণের ফলে পাহাড়ের উৎপাদনের পরিমান বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে মন্ত্রী বলেন আগামীতে দেশের রাজস্ব খাতে পার্বত্য চট্টগ্রামের নাম সবার উপরে উঠবে আর পার্বত্য জেলাগুলোর কৃষকরা অর্থনৈতিকভাবে আরো স্বাবলম্বী হবে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......