1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শেখ ফজলুল হক মনি স্মৃতি সংসদ কর্তৃক আয়োজিত পিকনিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংসদ গোলাম সরোয়ার টুকু’র শুভেচ্ছা বিনিময় চট্টগ্রামে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম কে অ্যাম্বুলেন্স প্রদানে পিএইচপি ফ্যামিলি আমতলী পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিক বরাদ্দ। বঙ্গলতলি বোধিপুর বন বিহারে ১০তম মহা সংঘদান উদযাপন শেরপুরে অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার “পরিমার্জিত কারিকলম দক্ষতা অর্জনে শিক্ষক প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই”-আদর্শ শিক্ষক ফোরামের শিক্ষক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন- জাতীয় দৈনিক সমকালে ‘বড় বোঝা হৃদয়ের ছোট্ট কাঁধে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ ,পেলেন ভ্যানগাড়ী।। আমতলীতে গরুসহ চোর গ্রেপ্তার সিএমপি, পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের ইপিজেড থানার দ্বিবার্ষিক পরিদর্শন সম্পন্ন।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ভাষা সৈনিক এম শামসুল হক চত্বরে স্মৃতিস্তম্ভে ফুলপুর প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ।

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫৯ জন দেখেছেন

জুয়েল রানাঃ বিশেষ প্রতিনিধি ময়মনসিংহ ফুলপুরঃ ময়মনসিংহের ফুলপুরে যথাযোগ্য মর্যাদা মহান বিজয় দিবস পালিত।বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে, ফুলপুর প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে  ভাষা সৈনিক এম শামসুল হক চত্বরে স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন প্রেস সভাপতি নাজিম উদ্দিন সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসাইন।সদস‍্য বৃন্দু।এসময় উপস্থিত ছিলেন  উপজেলা সম্মানিত উপদেষ্টা নির্বাহী অফিসার জনাব শীতেশ চন্দ্র সরকার। ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ  জনাব আব্দুল্লাহ আল মামুন।এবং সকল সহিদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করেন। মহান বিজয় দিবসে বাংলাদেশে বিশেষ দিন হিসেবে রাষ্ট্রীয়ভাবে দেশের সর্বত্র পালন করা হয়। প্রতি বছর ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশে দিনটি বিশেষভাবে পালিত হয়। ১৯৭২ সালের ২২ জানুয়ারি প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনে এই দিনটিকে বাংলাদেশে জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয় এবং সরকারিভাবে এ দিনটিতে ছুটি ঘোষণা করেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘোষণায় দীর্ঘ ৯ মাস কোমল হাতে তুমুল যুদ্ধ করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর হাত থেকে বাংলার মানুষকে মুক্ত করেন এবং বাঙালি জাতি পেয়েছে একটি স্বাধীন দেশ দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাকিস্তানি বাহিনীর প্রায় ৯১,৬৩৪ সদস্য আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করেন এর ফলে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামে একটি নতুন স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রের অভ্যুদয় ঘটে। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রতি বছর বাংলাদেশে দিবসটি যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য এবং বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার সাথে পালিত হয়। ১৬ ডিসেম্বর ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা ঘটে। জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে অনুষ্ঠিত সম্মিলিত সামরিক কুচকাওয়াজে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাংলাদেশ নৌবাহিনী এবং বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সদস্যরা যোগ দেন। কুচকাওয়াজের অংশ হিসেবে সালাম গ্রহণ করেন দেশটির প্রধান রাষ্ট্রপতি কিংবা প্রধানমন্ত্রী। এই কুচকাওয়াজ দেখার জন্য প্রচুরসংখ্যক মানুষ জড়ো হয়।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......