1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্লাব, কেন্দ্রীয় স্হায়ী কমিটির পক্ষে,শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন।  অমর একুশে ফেব্রুয়ারি “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস” উপলক্ষে গড়গড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। রাজশাহীর বাঘায় যথাযথ মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। যোগ্য ও দক্ষতার সাথে খোকা নতুন লুকে টেলিভিশনের পর্দায় আসার সম্ভাবনা। ঝিনাইগাতী শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন আমতলীতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি, বাঘায় রুকুনুজ্জামান রিন্টু ভালুকায় একুশে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি’র শ্রদ্ধা- কালাইয়ে মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

দেহ ব্যবসায়ীর প্রধান পরিচালনা কারী কবির হোসেন কর্তৃক সংবাদিক রিয়াজ কে হত্যার হুমকি দেয়ায় থানায় জিডি

  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ৭ নভেম্বর, ২০২২
  • ৯৯ জন দেখেছেন

রিপোর্ট: ক্রাইম রিপোর্টার (চট্রগ্রাম বিভাগ):-চট্টগ্রাম নগরীর ইপিজেড থানাধীন ৩৯নং ওয়ার্ড ইপিজেড লেবার কলোনী মাঠে গত ০১ নভেম্বর ২০২২ রোজ: মমঙ্গল বার রাত অনুমান সাড়ে ৮ ঘটিকায় এ হত্যার হুমকির ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বিবরণে সাংবাদিক রিয়াজ উদ্দিন জানায় যে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বন্দর থানা এলাকায়, জেসমিন আক্তার বৃষ্টি নামে একজন মেয়ে দেহব্যবসার ঘর চালাচ্ছে।

উক্ত তথ্য সংগ্রহের জন্য ঘটনা স্হানে গিয়ে

জানা যায় যে, জেসমিন আক্তার বৃষ্টি, সালমা,কবির হোসেনসহ ৪/৫ জনে মিলে, ২২/২৮ বছরের কিছু সুন্দরী মেয়ে দিয়ে এ দেহ ব্যবসার ঘরটি পরিচালনা করিতেছে।

এ বিষয় সাংবাদিক রিয়াজ জানায় আমরা গোপন তথ্যের ভিত্তিতে দেহ ব্যবসা পরিচালনাকারী স্হানে উপস্হিত হলে, সেখানে বৃষ্টি, কবিরসহ অনেক মেয়েদেরকে দেখতে পাই।

 

বিষয়টি স্হানীয় থানায় জানালে থানা পুলিশ ঘটনা স্হান থেকে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়।

বিষয়টি বিভিন্ন পত্র,পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায়, দেহ ব্যবসা পরিচালনাকারী মূল হোতা কবির হোসেন সাংবাদিক রিয়াজ উদ্দিনকে খারাব ভাষায় গালি গালাজ ও হত্যাসহ কেটে টুকরা টুকরা করে সাগরে ভাসিয়ে দেয়ার হুমকি প্রদান করিলে সাংবাদিক রিয়াজ দেহ ব্যবসায়ী কবির হোসেনের বিরুদ্ধে ইপিজেড থানায় একখান সাধারণ ডায়ারী/ জিডি দায়ের করেন।

জিডি খানা ইপিজেড থানা পুলিশের তদন্তধীন আছে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......