1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানার চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার এজাহারনামীয় পলাতক আসামি মোঃ রায়হান’কে চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব-১১। সীতাকুণ্ডে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ যানজট সৈনিক কল্যাণ সংস্থা Uno নিকট খেজুরের বীজ প্রদান বাংলাদেশ গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সমিতি চট্টগ্রাম জেলা শাখা কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান ও মাস ব‍্যাপি সাংগঠনিক কর্মসূচি 2024 সম্পন্ন। বরগুনার তালতলীতে অবৈধ চোলাই মদসহ আটক ১ জন। “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়”– “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়” শেরপুরের ঝিনাইগাতী তিনজন হোটেল মালিককে ৬ হাজার টাকা জরিমানা ২ কেজি গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী বরগুনা ডিবি পুলিশের হাতে আটক।

জাজিরায় ২১তম দিনে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে জেলেদের হামলা শিকার।

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২২
  • ৮০ জন দেখেছেন

রিপোর্টঃ মোঃ ওবায়েদুর রহমান সাইদ শরীয়তপুর প্রতিনিধি। শরীয়তপুরের জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়নে অবস্থিত পদ্মানদীর মধ্যে ২১ তম দিনের মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল বাশার ও নৌ পুলিশের উপর আক্রমন করে স্থানীয় জেলেরা। বৃহস্পতিবার (২৭-অক্টোবর) সকাল আট টায় সময় জাজিরা উপজেলা  বিলাসপুর ইউনিয়নের শফিক কাজীর মোড় থেকে তারা নদীতে অভিযানে নামে।উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল বাশার বলেন কিছুক্ষণ পরে টহলের এক পর্যায়ে পদ্মা নদীর মধ্যে বড়কান্দি এলাকায় গেলে সকাল ৯.৪০ এর সময় স্থানীয় কিছু জেলেরা চারটি ২০০ সিসির স্পীডবোট ও চারটি ট্রলার নিয়ে তাদের উপর আক্রমন চালায়। তবে এসময় কোন ধরনের হতা হতের ঘটনা ঘটেনি।এসময় টহল টীমের উপর প্রায় ২০-২৫ জন জেলে ইটপাটকেল নিক্ষেপের পাশাপাশি তাদের স্পীডবোট ও ট্রলার ডুবিয়ে দেয়ার চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে টহলকারী দল জেলেদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়লে তারা সেখান থেকে দ্রুত ঐ স্থানের ত্যাগ করার জন্য জেলেদেরকে অনুরোধ জানায় তাদের ছেড়ে দিতে।পরে জেলেরা কোন প্রকার ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই তাদের ছেড়ে দিলে তারা দ্রুত সেখান থেকে ঐ স্থান করে চলে আসেন। পরে অভিযানের সময়ে জব্দকৃত ইলিশ মাছ ধরার জন্য ব্যবহৃত দুই লাখ মিটার কারেন্ট জাল শফিক কাজীর মোড়ে এনে পুড়িয়ে দেয়া হয়।এসময় উপস্থিত ছিলেন, মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব হাবিবুর রহমান, শরীয়তপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রণব কুমার, জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ কামরুল হাসান সোহেল, নড়িয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পারভেজ হাসান, জাজিরা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল বাশার, নড়িয়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা জাহিদুর রহমানসহ নৌ পুলিশ ও নৌ বাহিনীর টিম বাণৌজা চিত্রা।এসময় মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব হাবিবুর রহমান বলেন, আমরা সফলভাবে এবারের মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান শেষ করছি। সামনে থেকে আরও সমন্বিত পরিকল্পনা নিয়ে আরও ভালোভাবে অভিযান পরিচালনা করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......