1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
শেরপুরে আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারী প্রধান আসামী গ্রেপ্তার চট্টগ্রামে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সংশোধনী সেবা সহজ করণ করা হচ্ছে সুদীপ কুমার চক্রবতী-বিপিএম সেবা,আপনাকে ভোলা সহজ নয়। শিবগঞ্জে ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী নিহত র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম’র অভিযানে পাহাড়তলী থানার আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি মোঃ শামসুল আলম রানা সহ  গ্রেফতার-০২ ঝিনাইগাতীতে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ আমতলীতে ব্রীজ ভেঙ্গে ৯জন নিহত হওয়ার ঘটনায় পৃথক দু’টি তদন্ত কমিটি গঠিত বহুল আলোচিত রাসেল’স ভাইপার সাপের সন্ধান পাওয়া গেছে। শিবগঞ্জে অনলাইন প্রেস ক্লাবের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হারুন অর রশিদ যশোর অভয়নগরে বেপরোয়া বালিবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে যুবক নিহত

ডাক্তার না হয়ে নামের পূর্বে ডাঃ ব্যবহার করে ,নিরবে চালিয়ে যাচ্ছেন জমজমাট,রমরমা অর্থ বানিজ্য

  • আপডেট সময়ঃ মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২২
  • ৮৭ জন দেখেছেন

রিয়াজ উদ্দিন, ক্রাইম রিপোর্টার(চট্রগ্রাম):-চট্টগ্রাম নগরীর ইপিজেড থানাধীন ৩৯নং ওয়ার্ড আকমল আলী রোড খামার বাড়ী মসজিদ রোড এলাকায় লোকনাথ নামক ফার্মেসীতে খুলে ডাক্তার না হয়ে দিচ্ছেন ডাক্তারী সেবা,নেই কোন ডাক্তারী সাটিফিকেট ও প্রেসক্রিপশন সহ দিয়ে যাচ্ছেন ডাক্তারী চিকিৎসা হাতিয়ে নিচ্ছে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা,অভিযোগ সাধারণ মানুষের।১২অক্টোবর বুধবার ১টা ৩মিনিটের সময় ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় প্রেসক্রিপশন ও সাটিফিকেট দেওয়া এই দৃশ্য।

একজন ভুক্তভোগী মহিলা গণমাধ্যমকে বলেন,আমি ডাক্তার স্বপ্না রানী দেবীর চেম্বারে চিকিৎসা করতে যাই  সে বিভিন্ন ভাবে আমার চেকআপ করেন,তিনি আমার কাছ থেকে ভিজিট নেয় সে নিজেই নাকি ডাক্তার, সে নিজেই সকল মেয়েদের সব রোগের চিকিৎসা করেন,বলে জানান ঐ ভুক্তভোগী মহিলা।

 

প্রেসক্রিপশন দেওয়ার ব্যাপারে ডাক্তার স্বপ্না রানী দেবীর কাছে জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন,ভিজিটিং কার্ডে ডাক্তার লেখাটা ভুল হয়েছিল আমার, আমি ভুল করেছি এই ভুলটার জন্য আমি আপনাদের কাছে ক্ষমা প্রার্থী আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত,আমার এখানে কোন ধরনের এমআর বা কোন সাটিফিকেট দেওয়া হয় না,তবে আমি রোগীদেরকে,প্রেসক্রিপশন দিতাছি আপনারা এসে সরাসরি দেখলেন,এর বাহিরে আমি আর কোন কাজ করি না,ভিজিটিং কার্ডটা আগে করেছিলাম বর্তমানে ভিজিটিং কার্ডটা আমি আর ব্যবহার করি না।গণমাধ্যমকর্মীরা ডাক্তার হওয়ার ব্যাপারে বারবার প্রশ্ন করেন,আপনি ডাক্তার হয়েছেন কত বছর ট্রেনিং বা প্রশিক্ষন করেছেন তিনি এব্যাপারে কোন কিছুই বলতে পারে নাই,এবং তিনি বারবার পাশ কাটিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন,স্বপ্না রানী দেবী ডাক্তার না হয়ে সাধারণ মানুষকে পরিচয় দিচ্ছেন সে একজন বড়মাপের ডাক্তার,অথচ তিনি কোন ডাক্তার না।তিনি একজন সাধারণ চিকিৎসক,এবং মা ও শিশু ও ধান্ত্রী রোগের অভিজ্ঞ,এই চিকিৎসকের, বর্তমানে তিনি পরিচয় দিয়ে প্রমান করতে চান, তিনি একজন বড় ডাক্তার।

 

প্রেসক্রিপশন ও সাটিফিকেট দেওয়া ব্যাপারে কয়েকজন গার্মেন্টসকর্মীরা গণমাধ্যমকে বলেন,স্বপ্না রানী দেবী এই ফার্মেসীতে বসে মেয়েদের এম আর করেন, রোগী দেখেন,এবং বিভিন্ন সময় চাকরির জন্য সাটিফিকেট দিয়ে ৩০০ শত টাকা করে ভিজিট নেন,দোকানের পিছনে বসে রোগী ও দেখেন তিনি,প্রকৃত ভাবে এই স্বপ্না রানী দেবী একজন ডাক্তার না,সে খামার বাড়ী মসজিদ রোড এলাকায় লোকনাথ ফার্মেসী নামক এই প্রতিষ্ঠানটি

গড়ে তোলেন,যার কোন ডাক্তারী বৈধ সাটিফিকেট বা ডাক্তারের কোন প্রশিক্ষন  করে নাই,ভুলবাল চিকিৎসা দিয়ে গার্মেন্টসকর্মী সহ সাধারণ জনগণের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা, স্বপ্না রানী দেবী, বিগত এক বছর আগে আকমল আলী রোড রেলবীট এলাকায় একটি ফার্মেসীতে চাকরি করতেন,হঠাৎ করে আলাউদ্দিনের চেরাগ পেয়ে রাতের আধারে বড়মাপের একজন ডাক্তার বুনে গেলেন,বিষয়টি কেমন যেন প্রশ্নবৃদ্ধ,

স্বপ্না রানী দেবীকে সকল কিছু দিয়ে সার্পোট দিতাছে প্রাইভেট চিকিৎসক কল্যাণ সমিতির/ কমিটির লোকজন বলে জানান।

 

ডাক্তার স্বপ্না রানী দেবীর ব্যাপারে প্রাইভেট চিকিৎসক কল্যাণ সমিতির পি কে দাশ এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি গণমাধ্যমকর্মীকে বলেন,আপনি কেন এই ফার্মেসীতে গিয়েছেন,আপনাকে কেউ কি যাইতে বলেছে,আপনারা কি কোন কর্তৃপক্ষ কি না।বলে জানান এই পি কে দাশ ।

 

ডাক্তার স্বপ্না রানী দেবীর ব্যাপারে প্রাইভেট চিকিৎসক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোঃ ফারুক রহমান মনু এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,কারও ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে মাথা ঘামানোর সময আমার হাতে নেই,সে একজন পল্লী চিকিৎসক,হিসেবে সেবা দিতে পারবেন,কেন সে ডাক্তার লাগিয়ে সাধারণ মানুষের সাথে এই ধরনের প্রতারণা করছে,এটার ব্যাপারে আমরা কোন কিছু জানি না,তবে সে আমাদের প্রাইভেট চিকিৎসক কল্যাণ সমিটির একজন  সদস্য,এছাড়া আর কিছু না। স্বপ্না রানী দেবী সে তো ডাক্তার না,তিনি হলেন একজন পল্লী চিকিৎসক,ডাক্তার লাগানোর ক্ষমতা স্বপ্না রানী দেবীর নেই বলে জানান সভাপতি মোঃ ফারুক রহমান মনূ।

 

প্রায় ১ঘন্টা পর স্বপ্না রানী দেবীর পক্ষ থেকে রাসেল নামে এক ব্যক্তি গণমাধ্যমকে ফোন করে বলেন,আপনারা স্বপ্না রানী দেবীর নামে সংবাদটি কোথাও পাবলিশ করবেন না,স্বপ্না রানী দেবীর বিষয়ে নিয়ে আপনাদের সাথে বসবো বলে ও জানান রাসেল নামে এই ব্যক্তি।

পর্ব ১

দ্বিতীয় পর্বে চোঁখ রাখুন

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......