1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানার চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার এজাহারনামীয় পলাতক আসামি মোঃ রায়হান’কে চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব-১১। সীতাকুণ্ডে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ যানজট সৈনিক কল্যাণ সংস্থা Uno নিকট খেজুরের বীজ প্রদান বাংলাদেশ গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সমিতি চট্টগ্রাম জেলা শাখা কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান ও মাস ব‍্যাপি সাংগঠনিক কর্মসূচি 2024 সম্পন্ন। বরগুনার তালতলীতে অবৈধ চোলাই মদসহ আটক ১ জন। “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়”– “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়” শেরপুরের ঝিনাইগাতী তিনজন হোটেল মালিককে ৬ হাজার টাকা জরিমানা ২ কেজি গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী বরগুনা ডিবি পুলিশের হাতে আটক।

জয়পুরহাটে মাদ্রাসার গাছ কেটে ভাগাভাগির অভিযোগ

  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১০৪ জন দেখেছেন

মীর মোঃ- আতিকুজ্জামান(সদর জয়পুরহাট)প্রতিনিধিঃ-জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বিনশিরা স্বতন্ত্র এবতেদ্বায়ী মাদ্রাসার গাছ কেটে ভাগাভাগি করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। এঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় এক ব্যাক্তিকে মারপিট করেছে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক। এঘটনায় ভুক্তভোগী ওই ব্যাক্তি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

 

জানাগেছে, পাঁচবিবি উপজেলার বিনশিরা স্বতন্ত্র এবতেদ্বায়ী মাদ্রাসার মাঠে থাকা ২ টি রেইনট্রি গাছ কেটে একটি গাছ আকবর হোসেন নামে এক ব্যাক্তি দিয়েছে এবং একটি গাছ মাদ্রাসার কমিটি বিক্রি করেছে। স্থানীয়রা বলছেন, কোন রকম নিয়মনীতি ছাড়াই গাছগুলো কেটে নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া মাদ্রাসার সম্পত্তি থাকা সত্বেও দৃশ্যমান কোন উন্নয়ন হয়নি বলেও অভিযোগ অনেকের।

 

এদিকে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে বিনশিরা গ্রামের রুবেল হোসেন নামে একজনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মজিদের বিরুদ্ধে। বিনশিরা স্বতন্ত্র এবতেদ্বায়ী মাদ্রাসার সাধারণ সম্পাদক মজিদ বলেন, কথা কাটাকাটি হয়েছে তবে মারধর করিনি।

 

বিনশিরা স্বতন্ত্র এবতেদ্বায়ী মাদ্রাসার সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন বলেন, ১৯৯২ সালে আকবর হোসেন মাদ্রাসায় গাছগুলো রোপণ করেন। পর্যায়ক্রমে একাধিবার গাছ কেটে বিক্রি করে কর্তৃপক্ষ। আকবর হোসেন যেহেতু গাছগুলো রোপণ করেছে তাই একটি গাছের দাবি তিনি করেন। পরে কমিটির সদস্যদের সম্মতিক্রমে আকবরকে একটি গাছ দেওয়া হয়েছে এবং বাঁকি অন্য গাছটি আমরা বিক্রি করে দিয়েছি।

 

এবিষয়ে পাঁচবিবি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.বরমান হোসেন বলেন, এবিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......