1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানার চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার এজাহারনামীয় পলাতক আসামি মোঃ রায়হান’কে চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব-১১। সীতাকুণ্ডে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ যানজট সৈনিক কল্যাণ সংস্থা Uno নিকট খেজুরের বীজ প্রদান বাংলাদেশ গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সমিতি চট্টগ্রাম জেলা শাখা কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান ও মাস ব‍্যাপি সাংগঠনিক কর্মসূচি 2024 সম্পন্ন। বরগুনার তালতলীতে অবৈধ চোলাই মদসহ আটক ১ জন। “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়”– “শিক্ষায় কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়” শেরপুরের ঝিনাইগাতী তিনজন হোটেল মালিককে ৬ হাজার টাকা জরিমানা ২ কেজি গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী বরগুনা ডিবি পুলিশের হাতে আটক।

খুলনায় বাসের ধাক্কায় ০২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১১৯ জন দেখেছেন

মোঃ ইমানুর রহমান,জেলা প্রতিনিধি, খুলনা,খুলনা মহানগরীতে সকালে বাসের ধাক্কায় হাফেজ মো. শরিফুল ইসলাম (২৩) নামে একজন হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক ও মো. বেলাল হোসেন (২৪) নামে একজন মসজিদের মুয়াজ্জিন প্রাণ হারিয়েছেন।

তারা দুজনই একটি মোটরসাইকেলে আরোহী ছিলেন।

 

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে খুলনা মহানগরীর হোগলাডাঙ্গা প্রগতি স্কুলের সামনের মোড়ে ‘টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস’ গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারান তারা।

 

ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী প্রায় ঘণ্টাখানেক খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন ।

 

নিহত হাফেজ মো. শরিফুল ইসলাম বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার উত্তর কুমারিয়া জোলা গ্রামের মো. কাওছার হোসেনের ছেলে। তিনি খুলনার রাজবাঁধ নুরানি হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক ছিলেন।  মো. বেলাল হোসেন রাজবাঁধ এলাকার মো. মোস্তফার ছেলে। তিনি রাজবাঁধ আয়েশাবাদ জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন ছিলেন।

 

স্থানীয়রা জানান, নিহতরা রাজবাঁধের ভিতর থেকে মেইন রোডে মোটরসাইকেলে উঠছিলেন। টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের বাসটি সাতক্ষীরার দিক থেকে খুলনার দিকে আসছিলো। মোটরসাইকেল নিয়ে তারা রাস্তার পাশে ছিলেন। সেখানেই মোটরসাইকেলকে চাপা দিয়ে বাসটি দ্রুত পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই শরিফুল ও বেলাল মারা যান।

 

আরেকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, একটি ট্রাককে সাইট দিতে গিয়ে বাসটি রাস্তার পাশে চলে এসে মোটরসাইকেল চাপা দেয়। বাস ও ট্রাক দুটিই ছিলো বেপরোয়া গতিতে। মোটরসাইকেল ও হেলমেট ভেঙে চুরমার হয়ে যায়। দুই আরোহী প্রাণ হারায়।

 

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট হরিণটানা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমদাদুল হক বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক বাস এখনও আটক করা যায়নি।

 

ঘাতক বাস এবং চালককে গ্রেফতারের দাবিতে এলাকাবাসী রাস্তা অবরোধ করে। পরবর্তীতে প্রশাসন আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী অবরোধ তুলে নেয়।

 

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......