1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্লাব, কেন্দ্রীয় স্হায়ী কমিটির পক্ষে,শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন।  অমর একুশে ফেব্রুয়ারি “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস” উপলক্ষে গড়গড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। রাজশাহীর বাঘায় যথাযথ মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। যোগ্য ও দক্ষতার সাথে খোকা নতুন লুকে টেলিভিশনের পর্দায় আসার সম্ভাবনা। ঝিনাইগাতী শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন আমতলীতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি, বাঘায় রুকুনুজ্জামান রিন্টু ভালুকায় একুশে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদের প্রতি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি’র শ্রদ্ধা- কালাইয়ে মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

শরীয়তপুরে প্রেমিকের সাথে ঝগড়া করে প্রেমিকার আত্মহত্যা

  • আপডেট সময়ঃ শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৫৯ জন দেখেছেন

মোঃ ওবায়েদুর রহমান সাইদ শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

প্রেমিকের সঙ্গে ঝগড়া করে শরীয়তপুর পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী তয়না আক্তার (১৮)। বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে ৪ নং ওয়ার্ডের তুলাসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তয়না আক্তার তুলাসার গ্রামের নুরুজ্জামান ফকিরের ছোট মেয়েপ্রেমিক এনএস নয়ন (২২) একই গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী তয়নার সঙ্গে একই কলেজের বিএম প্রথম বর্ষের ছাত্র নয়নের গত তিন বছর যাবত প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। সম্প্রতি তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হলে নয়নের সঙ্গে অন্য একটি মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত রাতে মেসেঞ্জারে কেউ একজন নয়নের সঙ্গে আরেকটি মেয়ের ঘনিষ্ঠ কয়েকটি ছবি দেয় তয়নাকে। ছবি দেখার পর রাতেই বন্ধুদের এসএমএস দিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে নিজ রুমে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে তয়না। পরে বিড়ালের ডাকের শব্দে ঘুম ভাঙ্গে পরিবারের। তয়নার রুমে গিয়ে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে তয়না। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় ৷ এ ঘটনায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলার প্রস্তুতি চলছে।নিহতের বাবা নুরুজ্জামান ফকির বলেন, গতকাল রাতেই ওই নয়ন আমার মেয়েকে অকথ্য ভাষায় অনেক গালিগালাজ করেছে। যে তোর সাথে এতদিন সম্পর্ক করেছি টাইম পাস করার জন্য। তুই একটা ড্রাইভারের মেয়ে খারাপ মেয়ে। আমার সোনার টুকরার মেয়ে এমনে চইলা যাইব যদি জানতাম সারারাত আমি পাহারা দিতাম। আইনের মাধ্যমে আমি ওই নয়নের বিচার চাই।পালং থানার ওসি মো. আক্তার হোসেন বলেন, একটি ছেলের সাথে প্রেম ঘটিত বিষয় নিয়ে মনমালিন্য হওয়ায় মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। এখন আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলার প্রস্তুতি চলছে। ময়নাতদন্ত শেষ হয়েছে এখন পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......