1. admin@dailyoporadhonusondhanltd.net : admin :
শিরোনামঃ
গভীর নলকূপের ট্রান্সফরমার চুরি করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে অজ্ঞাত এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। র‌্যাব-৭,চট্রগ্রাম’র অভিযানে যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল হোসেন গ্রেফতার।  ঘূর্ণিঝড় রেমালে বন্দরের সব কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা অ্যালার্ট-৪ জারি চট্টগ্রামে স্মরণ সভা ইরানের নিরাপত্তা আরো জোরদার করা প্রয়োজন – নিজামী কালাই এ জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদ্বোধন হারুন অর রশিদ রিমেলের তান্ডবে বাঁধ ভেঙ্গে তলিয়ে গেছে আমতলীর নিম্নাঞ্চল  ইমাম ও মুয়াজ্জিন নিয়োগ নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ করা কে এই আবদুর রহমান? আমতলীতে ‘রেমাল’ মোকাবেলায় জরুরী সভা, প্রস্তুত ১১১ সাইক্লোন শেল্টার তেতুলিয়ায় উপজেলা নির্বাচন চলাকালীন সময়ে সৌন্দর্য বর্ধক বাঁশঝাড় উধাও ময়মনসিংহের ফুলপুরে দুস্থ অসহায় ৪২৬০জন পেলেন ভিজিএফ কার্ড

খুলনা তেরখাদায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বাল্য বিবাহ বন্ধ,জেল ও জরিমানা

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ২০ আগস্ট, ২০২২
  • ৫৩৫ জন দেখেছেন

মোঃরজিবুল ইসলাম,ব্যুরো প্রধান(খুলনাবিভাগ):-খুলনার তেরখাদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর বাল্য বিবাহ বন্ধ করা হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার দুপুরে তেরখাদা উপজেলার ইখড়ি চড়পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১২ বছর বয়সী ওই কিশোরীর বিবাহ বন্ধ করেন।

এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কনের মাতা ও পাত্রের অভিভাবককে জেল, জরিমানা করেন। উপস্থিত সকলকে বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কে অবহিত করার সাথে সাথে বাল্য বিবাহের ঘটনা ঘটলে তাকে অবহিত করার অনুরোধ করেন তিনি।

তবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে কনের পিতা, বর ও বরের পিতা পালিয়ে যায়। বাল্য বিয়ের পিড়িতে বসতে যাওয়া ওই কিশোরীর বয়স ১২। সে স্থানীয় একটি মাদরাসায় পড়াশুনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিয়ে বাড়িতে হাজির হয় ইউএনও (উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা), সাথে সাথে শুরু হয় চোর পুলিশ খেলা, মুহুর্তের মধ্যে শফিকুল কাজী তার কন্যা আদরী খাতুন (১২) কে নিয়ে এবং আব্দুর রশিদ তার ছেলেকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের চাপের মুখে সেখানে হাজির হয় মেয়ের মা খুকু মনি ও ছেলের খালাত ভাই আলম।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ মোতাবেক মেয়ের মা কে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ছেলের খালাতো ভাইকে ৮ মাসের কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, বাল্য বিবাহ নিরোধে এ অভিযান অব্যহত থাকবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল হক,ইউপি চেয়ারম্যান এম আলমগীর হোসেন ও থানার এস আই মোঃ মনিরুজ্জামান।

শেয়ার করুন

আরো দেখুন......